মায়ানমারে শক্তিশালী ভূমিকম্পের জেরে কাঁপল উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলা! আতঙ্কিত মানুষ

মায়ানমারে শক্তিশালী ভূমিকম্পের জেরে কাঁপল উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলা! আতঙ্কিত মানুষ
মায়ানমারে শক্তিশালী ভূমিকম্পের জেরে কাঁপল উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলা! আতঙ্কিত মানুষ / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ মায়ানমারে শক্তিশালী ভূমিকম্পের জেরে কেঁপে উঠল উত্তরবঙ্গ। বৃহস্পতিবার রাত ১২ টা নাগাদ ভূমিকম্প অনুভূত হয় উত্তরবঙ্গের শিলিগুড়ি, দক্ষিণ দিনাজপুর, কোচবিহার-সহ উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলায়। এইসব এলাকায় ভূমিকম্পের তীব্রতা ছিল রিখটার স্কেলে ৫.৫।

জানা গিয়েছে, এই ভূমিকম্পের উৎসস্থল ছিল মায়ানমারের ম্যান্ডল। ওই অঞ্চলের ১৪৮ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে প্রবল ভূমিকম্প অনুভূত হয়। ওই শক্তিশালী ভূমিকম্পের প্রভাবেই কেঁপে ওঠে উত্তর-পূর্ব ভারতের একটা বড় অংশ। আবার অসমের একাধিক এলাকায় তীব্র কম্পন অনুভূত হয়েছে বলেও দাবী করা হয়েছে। এদিকে, এই ভূমিকম্পকে ঘিরে ইতিমধ্যেই আতঙ্ক ছড়িয়েছে মানুষের মধ্যে।

উল্লেখ্য, গতকাল জাপানের রাজধানী টোকিয়োতে ভয়াবহ ভূমিকম্প হয়েছে। রিখটার স্কেলে এই কম্পনের তীব্রতা ছিল ৬.১। জানা গিয়েছে, এদিন টোকিয়ো সহ সংলগ্ন এলাকা আচমকাই কেঁপে ওঠে। যার জেরে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। একাধিক এলাকা অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে পড়েছিল। তবে, এই কম্পনের জেরে বড় কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলেই জানিয়েছে জাপানের পাবলিক ব্রডকাস্টার NHK।

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার ভোররাত সাড়ে তিনটে নাগাদ জোরাল কম্পন অনুভূত হয় দক্ষিণ পাকিস্তানের বালোচিস্তানের অন্তগর্ত হারনাই শহর। স্বাভাবিকভাবেই সেই সময় গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন ছিল গোটা শহর। কিছু বুঝে ওঠার আগেই বাড়িগুলির ছাদ-দেওয়াল ভেঙে পড়ে। ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে যান বহু মানুষ। পরে কেউ কেউ সেই ধ্বংসস্তূপ সরিয়ে বেরিয়ে আসতে সক্ষম হলেও, তাঁদের চোট গুরুতর। আবার জানা গিয়েছে, কয়েকজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা করে ছেডে় দেওয়া হলেও‌, এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অনেকে।

বালোচিস্তানের রাজধানী কোয়াত্তা শহরেও কম্পন অনুভূত হয়। পাকিস্তানের সেসমোলজি বিভাগ সূত্রে খবর, রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৬। উৎসস্থল ছিল হারনাই এলাকার ভূপৃষ্ঠ থেকে ১৪ কিলোমিটার গভীরে। পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ প্রদেশমন্ত্রী মির জিয়া উল্লাহ লাঙ্গাউ জানিয়েছেন যে, ‘আমরা ভূমিকম্পের খবর পেয়েছি, অন্তত ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে ৷ উদ্ধারকার্য চলছে ৷’ সরকারি আধিকারিক সূত্রে খবর, মৃত ২০ জনের তালিকায় একজন মহিলা ও ছয় শিশুও রয়েছে।

উল্লেখ্য, কিছুদিনের বিরতির পর, ফের সারা বিশ্বে পরপর ভূমিকম্পের ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই মানুষের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।