করোনার জেরে ৩১ মার্চ থেকে বন্ধ হতে চলেছে রেল পরিষেবা? জেনে নিন এর আসল সত্যতা

করোনার জেরে ৩১ মার্চ থেকে বন্ধ হতে চলেছে রেল পরিষেবা? জেনে নিন এর আসল সত্যতা
করোনার জেরে ৩১ মার্চ থেকে বন্ধ হতে চলেছে রেল পরিষেবা? জেনে নিন এর আসল সত্যতা

দেশে এসেছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। টিকাকরণ শুরু হলেও ফের চোখ রাঙাচ্ছে করোনা। বেশ কয়েকটি রাজ্যে বেড়েই চলেছে করোনা সংক্রমণ। মহারাষ্ট্র সহ সংক্রমণ বাড়ছে দিল্লি এবং কলকাতাতেও। এই অবস্থায় পরিস্থিতিতে নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশ কয়েকটি বিধিনিষেধ জারি করেছে সরকার। এবার নাকি সংক্রমণ ঠেকাতে বন্ধ হতে পারে দেশব্যাপী রেল পরিষেবাও!

প্রসঙ্গত, গত বছর করোনার জেরে লকডাউন ঘোষণা হতে হতেই বন্ধ হয়ে গিয়েছিল দেশব্যাপী রেল পরিষেবা। বাতিল করে দেওয়া হয়েছিল সমস্ত প্যাসেঞ্জার। তবে বিভিন্ন রাজ্যে আটকে থাকা পরিয়ায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চালু করা হয়েছিল। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে নভেম্বর মাস থেকে ফের চালু হয় রেল পরিষেবা।

সেরকমই চলতি বছরেও বেশ কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে, আগামী ৩১ মার্চ থেকে নাকি দেশজুড়ে বন্ধ হতে চলেছে রেল পরিষেবা। সমস্ত প্যাসেঞ্জার ট্রেন নাকি বাতিল ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। সম্প্রতি এই নিয়ে নেটমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে একটি পোস্টও। যেখানে বলা হয়েছে, আগামী ৩১ মার্চ থেকে নাকি বাতিল হচ্ছে রেল পরিষেবা। বন্ধ হচ্ছে সমস্ত প্যাসেঞ্জার ট্রেন। শুধুমাত্র মালবাহী ট্রেনগুলি চালু রাখার কথা ঘোষণা করা হয়েছে আপাতত। করোনার ফের সংক্রমণ এড়াতেই নাকি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল মন্ত্রক, এও দাবী করা হয়েছে পোস্টটিতে।

তবে এসব কি আদৌ সত্য? ইতিমধ্যেই কেন্দ্র জানিয়েছে এই দাবী একেবারেই ভুয়ো এবং ভিত্তিহীন। সরকারের তরফ থেকে রেল বন্ধের কোনও সিদ্ধান্তই নেওয়া হয়নি। সেই সঙ্গে ভারতীয় রেলের তরফেও একই কথা জানানো হয়েছে। রেল মন্ত্রক জানিয়েছে, ৩১ মার্চ থেকে রেল পরিষেবা বন্ধের দাবীটি একদমই সঠিক নয়। এই জাতীয় পোস্ট দেখলে তা এড়িয়ে যাওয়ার অনুরোধও করা হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.