নিশীথ প্রামাণিককে অনুপ্রবেশকারী বলে কটাক্ষ ফিরহাদের

নিশীথ প্রামাণিককে অনুপ্রবেশকারী বলে কটাক্ষ ফিরহাদের
নিশীথ প্রামাণিককে অনুপ্রবেশকারী বলে কটাক্ষ ফিরহাদের

চলতি মাসের ৩০তারিখ উপনির্বাচন রয়েছে বাকি চার কেন্দ্রে। তাই পুজো মিটতেই দিনহাটায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে প্রচারে নেমেছেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। খানে গিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা কোচবিহারের সাংসদ নিশীথ প্রামাণিকের অনুপ্রবেশকারী বলে কটাক্ষ করলেন তিনি। একই সঙ্গে বিএসএফকে চোর বলে আক্রমণ করেন ফিরহাদ।

দিনহাটায় উদয়ন গুহকে প্রার্থী করেছে তৃণমূল। সেখানে গিয়ে উদয়ন গুহ প্রার্থী হলেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে ভোট চাইলেন ফিরহাদ হাকিম। তাঁর কথায়, “ভোটটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভোট”। জনসভা নির্বাচনের মতো উপনির্বাচনেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে ভোট চাইছেন রাজ্যের মন্ত্রীরা।

এদিনের এক জনসভা থেকে ফিরহাদ হাকিম নিশীথ প্রামানিককে আক্রমণ করে বলেন, “জনগণকে ঠিক করতে হবে তারা ভোটটা কাকে দেবে। বাংলার মানুষকেই ঠিক করতে হবে তারা ভোটটা অনুপ্রবেশকারীকে দেবেন না। নিজেকে বাঁচা তুই এখন এই নেতা মোদির পায়ে গড়াগড়ি দিচ্ছেন।” প্রসঙ্গত নিশীথ প্রামানিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হওয়ার পর নিশীথ প্রামাণিকের পূর্বপুরুষ বাংলাদেশের বাসিন্দা ছিলেন বলে দাবি করা হয়েছিল বাংলাদেশের একটি সংবাদমাধ্যমে। মূলত এই প্রসঙ্গে এই মন্তব্য করেছেন ফিরহাদ হাকিম।

অন্যদিকে, বিএসএফকে চোর বলে আক্রমণ করেছেন তিনি। ফিরহাদের কথায়, “সীমান্তে নাকি বিএসএফ আরো বেশি এলাকা জুড়ে পাহারা দেবে। বিএসএফ তো চোর বটেই তারা এখন আরো বেশি করে চুরি করবে”। প্রসঙ্গত, আগে পশ্চিমবঙ্গের সীমান্তের ১৫ কিমি পাহারা দিত বিএসএফ। কিন্তু সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জারি করা এক নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, থেকে পাঞ্জাব আসাম এবং পশ্চিমবঙ্গের সীমান্তের ৫০ কিমি পর্যন্ত তদন্ত করতে পারবে বিএসএফ এবং সে ক্ষেত্রে প্রয়োজনে কাউকে গ্রেফতার করতে পারবে তারা। এই নিয়েই এদিন বিএসএফকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।