শুরু হলো একুশের মহারণ! কোথায় কেমন ব্যবস্থা, রইল বিস্তারিত

শুরু হলো একুশের মহারণ! কোথায় কেমন ব্যবস্থা, রইল বিস্তারিত
শুরু হলো একুশের মহারণ! কোথায় কেমন ব্যবস্থা, রইল বিস্তারিত

একুশের মহারণের আট দফা যুদ্ধের কাউন্ট ডাউন শুরু। আজ অর্থাৎ শনিবার থেকে রাজ্যে প্রথম দফার নির্বাচন শুরু হল। বাংলার মসনদ কার হবে তার গুরুত্ব পূর্ন নির্ণায়ক ভূমিকা এই ভিধন সভা নির্বাচনের। প্রথম দফায় যে ৩০ টি বিধান সভা আসনে ভোট গ্রহণ হবে তার চূড়ান্ত প্রস্তুতি শেষ। যে কোনো মূল্যে নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে বদ্ধ পরিকর।

প্রথম দফা নির্বাচনে পশ্চিম মেদিনীপুরের কিছুটা অংশে, পূর্ব মেদিনীপুরের কিছুটা অংশে, ঝাড়গাম পূর্ণাঙ্গ, পুরুলিয়া পূর্ণাঙ্গ, বাঁকুড়া কিছুটা অংশে মূলত নির্বাচন হবে। এর মধ্যে পূর্ব মেদিনীপুরের সাতটি আসনে পশ্চিম মেদিনীপুরে ৬ টি আসনে ঝারগ্রাম এর চারটি আসনে পুরুলিয়ায় ৯ টি আসনে ও বাঁকুড়া চারটি আসনে ভোটগ্রহণ হবে। সর্বমোট ৩০ টি আসনে শনিবার ভোট গ্রহণ হবে।ত্রিশটি বিধানসভা আসনের মোট ১৯১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

প্রথম দফা নির্বাচনে সাধারণ ভোটারের সংখ্যা ৭৩ লক্ষ আশি হাজার ৯৮৩।এর মধ্যে পুরুষ ভোটারের সংখ্যা ৩৭ লক্ষ ৫২ হাজার ৯৩৮ এবং মহিলা ভোটারের সংখ্যা ৩৬ লক্ষ ২৯ হাজার ৯৪৯। তৃতীয় লিঙ্গের ভোটারের সংখ্যা ৫৫। সার্ভিস ভোটারের সংখ্যা ১১,৭৭৬। ৮০ঊর্ধ্ব ভোটারের সংখ্যা এক লক্ষ ২৩ হাজার ৩৯৩। বিশেষভাবে সক্ষম ভোটারের সংখ্যা ৪০ হাজার ৪০৮। ওভারসিজ ভোটারের সংখ্যা ৩ জন। মোট পোলিং স্টেশনের সংখ্যা ১০ হাজার ২৮৮।নির্বাচনের আগে সবাইকে ভোটার কার্ড প্রদান করা হয়েছে বলেও কমিশন জানিয়েছে।প্রথম দফার নির্বাচনে কুড়িজন জেনারেল অবজারভার কে নিযুক্ত করা হয়েছে একইসঙ্গে নজন এক্সপেন্ডিচার অবজারভার নিযুক্ত করা হয়েছে এবং পুলিশ অবজারভার রাখা হয়েছে ৭ জন। প্রথম দফা নির্বাচনে ১০ হাজার ২৮৮ টি ইভিএম ও ব্যালট ইউনিট এবং ভিভী প্যাট মেশিন ব্যবহার করা হবে। এছাড়াও রিজার্ভে ২৫৯৮ ইভিএম, ২৫০০ টি ব্যালট ইউনিট ও ৩৫০০ টি ভিভি প্যাট রিপেয়ার মেশিন রাখা হয়েছে।

প্রথম দফাতেই ভোট রয়েেছ জঙ্গল মহলে। রয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরও।পাঁচটি জেলার ত্রিশটি বিধানসভা কেন্দ্রের নির্বাচনের জন্য ৭৩৯ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী বরাদ্দ করা হয়েছে। এমনটাই সূত্রের খবর এরমধ্যে ৬৫৯ কম্পানি বিভিন্ন বুথে পাহারায় থাকবে সঙ্গে থাকবেন একজন লাঠিধারী পুলিশ বুথ এর ভেতরে নিরাপত্তা কর্মীদের সঙ্গে।ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ১০০ মিটারের মধ্যে এই লাঠিধারী পুলিশ কে দেখা যাবে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সঙ্গে এছাড়াও থাকছে ভিডিওগ্রাফি। ড্রোনের মাধ্যমে ও নজরদারি চালানো হবে স্পর্শ কাতর বুথ গুলিতে এমনটাই সূত্রের খবর।বাকি ৭১ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী কুইক রেসপন্স টিম টহলদারি জন্য ব্যবহার করা হবে।এছাড়াও প্রতিটি বুতে কোভিদ বিধি মেনে রাখা থাকবে স্যানিটাইজার মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লাভস একই সঙ্গে থাকছে থার্মাল গান দিয়ে শরীরের তাপ মাপার ব্যবস্থা।

এদিন মূলত আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকাতেই হবে ভোট গ্রহন। ৩০ কেন্দ্রের মধ্যে রয়েছে অধিকারীদের পূর্ব মেদিনীপুরও। পাঁচ জেলা ঝাড়গ্রাম, পূর্ব মেদিনীপুর, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া ও পশ্চিম মেদিনীপুরে হবে ভোট গ্রহন।প্রথম দফায় ৫ জেলার ৩০টি আসনে রয়েছে ভোট গ্রহন। পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি উত্তর, কাঁথি দক্ষিণ, পটাশপুর, ভগবানপুর, খেজুরি, রামনগর, এগরা। ঝাড়গ্রামের বিনপুর, নয়াগ্রাম, গোপীবল্লভপুর, ঝাড়গ্রাম। বাঁকুড়ার রাইপুর, রানিবাঁধ, ছাতনা, শালতোড়া। পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতন, কেশিয়ারি, খড়গপুর, গড়বেতা, শালবনী।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.