ফের করোনার কোপ পূর্ব বর্ধমানে, আরও ৫ জনের শরীরে পাওয়া গেলো করোনার হদিস

Image Source: Google

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ লকডাউনের মাঝেই করোনা আক্রান্ত্রের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে। আজ ফের পূর্ব বর্ধমান জেলার পাঁচ জন করোনা আক্রান্ত্রের হদিশ মিলেছে। তবে এই পাঁচ আক্রান্ত্রের মধ্যে কালনায় দুজন আক্রান্ত্র হয়েছেন, গলসির শিড়োরাইয়ে এক জন মহিলার শরীরে করোনা ভাইরাস মিলেছে, আউশগ্রামে এক জনের শরীরে মিলেছে করোনা ভাইরাস, এবং বর্ধমানের উদয় পল্লী এলাকায় এক শিশুকন্যার শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মিলেছে।

ওই পাঁচ এলাকাকে কন্টেইনমেন্ট জোনের আওতাভুক্ত করা হয়েছে, এছারাও পুলিশ বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে দিয়েছে পুর এলাকা, করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, এবং তাঁদের সংস্পর্শে থাকা ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টাইনসেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্যদফতর সূত্রে জানা গিয়েছে কালনার নসিপুর ও ফকির ডাঙ্গা এলাকার দু জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, এবং ওই দু জন মুম্বই থেকে বাড়ি ফিরেছিলেন, ওই দু জন ব্যক্তির বাড়ি ফেরার পর বর্ধমান মেডিক্যালে লালারসের নমুনা পরিক্ষা করায় রিপোর্টে পজিটিভ আসে। তারপরে দুর্গাপুরের সনকা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভরি হয়েছেন।

গলসির শিড়োরাই পশ্চিম পাড়ার এক মধ্য বয়স্ক মহিলা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, তবে তিনি বাইরে থেকে আসেননি, তিনি শ্বাসকষ্টজনিত রোগে ভুগছিলেন এবং সে কারনেই তিনি বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। তারপরই লালারস পরিক্ষা করার পর রিপোর্টে জানা যায় তিনিও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। জানা গিয়েছে ওই মহিলাকেও চিকিৎসার জন্য ওই মহিলাকে দুর্গাপুরের সনকা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আউশগ্রামের বেলেমাঠ গ্রামে এক পরিযায়ী শ্রমিক করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তবে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে পাঁচ মাস আগে রাজমিস্ত্রির কাজের জন্য চেন্নাইয়ে গিয়েছিলেন। গত মঙ্গলবার তিনি বাড়ি ফিরেছেন এবং আউশগ্রাম ২ ব্লক হাসপাতালে লালারস পরিক্ষা করার পর রিপোর্টে করোনা পজিটিভ এসেছে। ওই আক্রান্ত ব্যক্তিকে দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে ভরিতি করা হয়েছে। এবং বর্ধমানের উদয়পল্লীর করোনা আক্রান্ত শিশু কন্যাকে কলকাতা মেডিকেলে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর শিশুকন্যা বাবা মায়ের সঙ্গে দিল্লি থেকে ফিরেছিল, এবং তারপরই করোনা আক্রান্ত হয় ওই শিশু কন্যা। সংস্পর্শে আশা সমস্ত ব্যক্তিকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সাথে সাথে ওই সংক্রমিত এলাকা গুলিকে কন্টেইনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ  হাওড়া ও শিয়ালদা থেকে চলবে বেসরকারি ট্রেন, জেনে নিন ট্রেনের তালিকা ও সময়সূচি

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.