দেশব্যাপী অক্সিজেন সংকটের মোকাবিলায় বড় পদক্ষেপ কেন্দ্রের! আরও দাম কমছে অক্সিজেন সিলিন্ডারের

দেশব্যাপী অক্সিজেন সংকটের মোকাবিলায় বড় পদক্ষেপ কেন্দ্রের! আরও দাম কমছে অক্সিজেন সিলিন্ডারের
দেশব্যাপী অক্সিজেন সংকটের মোকাবিলায় বড় পদক্ষেপ কেন্দ্রের! আরও দাম কমছে অক্সিজেন সিলিন্ডারের / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাজেহাল দেশ। ঝড়ের গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে সংক্রমণ। প্রতিদিন সংক্রমণের সতুন রেকর্ড সৃষ্টি হচ্ছে। ইতিমধ্যেই দেশে করোনার দৈনিক সংক্রমণ প্রায় সাড়ে তিন লাখ। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও।

এই পরিস্থিতির মধ্যেই দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের আকাল। অক্সিজেনের অভাবে করোনা রোগীর মৃত্যু ঘটছে প্রায় প্রতিদিনই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। এই সমস্যার মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এবার দেশে অক্সিজেনের সংকটের মোকাবিলায় আরও বড় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হল কেন্দ্র সরকারের পক্ষ থেকে।

অক্সিজেন সংকটের সমস্যার সমাধানের উপায় খুঁজে বার করতেই শনিবার মন্ত্রী গোষ্ঠীর সঙ্গে জরুরি বৈঠকে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই বৈঠকেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, অক্সিজেন তৈরির উপকরণ ও সরবরাহের সরঞ্জামের আমদানিতে শুল্ক ও স্বাস্থ্য সেস মকুব করা হবে। আগামী তিন মাসের জন্য এই নিয়ম কার্যকর থাকবে বলেও জানানো হয়েছে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে। এর পাশাপাশি কোভিড ভ্যাকসিন উৎপাদনের সরঞ্জামের আমদানিতেও শুল্ক মকুবের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

এক সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, অক্সিজেন সরবরাহ স্বাভাবিক করতে বড় পদক্ষেপ নিয়েছে মোদি সরকার। অক্সিজেন উৎপাদন ও সরাবরাহের জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের আমদানিতে শুল্ক ও স্বাস্থ্য সেসে ছাড় দেওয়া হল। এর ফলে অক্সিজেনের সিলিন্ডারের দাম অনেকটাই কমে যাবে। পাশাপাশি সস্তা হবে অক্সিজেন সরবরাহ। আগামী তিন মাস এই নিয়ম কার্যকর থাকবে। শুধুমাত্র অক্সিজেনই নয়, করোনা ভ্যাকসিনের আমদানি শুল্কেও ছাড় দিয়েছে কেন্দ্রের মোদী সরকার।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শুধুমাত্র এই অক্সিজেনের অভাবেই এখনও অবধি বহু করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। চারিদিকে অক্সিজেনের জন্য হাহাকার দেখা দিয়েছে। হাসপাতালের সুপার, চিকিৎসকদের অসহায়ভাবে সেইসব মৃত্যুর সাক্ষী থাকতে হয়েছে। তাঁদের অসহায়ভাবে হাত জোর করে আবেদনও করতেও দেখা গেছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে শ্বাসকষ্ট একটা বড় সমস্যা হয়ে দেখা দিয়েছে। তার উপর অক্সিজেনের অভাবই মৃত্যুর সংখ্যাকে বাড়িয়ে তুলেছে।

উল্লেখ্য, অমৃতসরের হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাব ৫ জনের করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে বলে খবর। গত ৪৮ ঘণ্টা ধরে এই পরিস্থিতি সেখানকার। এমনকী, দিল্লিতেও ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর। এমনকী, অক্সিজেনের অভাবে দিল্লির এইমসের জরুরি বিভাগ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এমন পরিস্থিতি কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.