ভাষণ সম্প্রচার বন্ধ! দুঃখ প্রকাশ করে অধ্যক্ষকে চিঠি রাজ্যপালের

ভাষণ সম্প্রচার বন্ধ! দুঃখ প্রকাশ করে অধ্যক্ষকে চিঠি রাজ্যপালের
ভাষণ সম্প্রচার বন্ধ! দুঃখ প্রকাশ করে অধ্যক্ষকে চিঠি রাজ্যপালের

ফের রাজ্যের সঙ্গে সংঘাত বাড়ছে রাজ্যপালের। এবার বিধানসভায় বাজেট অধিবেশনের আগেই রাজ্যপালের ভাষণ নিয়ে দ্বন্দ্ব লাগলো নবান্ন-রাজভবনের। এবারের বাজেট অধিবেশনের আগের রাজ্যপালের ভাষণ রাখা হচ্ছে না অন্যদিকে তার ভাষণ সম্প্রচার বন্ধ রাখা হয়েছে। এই সব কিছু নিয়েই এবার দুঃখ প্রকাশ করে বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লেখেন তিনি।

এদিন অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় কে চিঠি লিখে তিনি জানান, লোকসভার স্পিকারকে দেওয়া আপনার চিঠি আমাকে ব্যথিত করেছে। এর থেকে বেশি দুঃখের আর কিছু হয়না আপনার এই অভিযোগ সংবিধানের পরিপন্থী। বরং বারবার আপনার কাজে রাজ্যপাল পত্রের অবমাননা করা হয়েছে আমি বিধানসভায় যাওয়ার পরেও গেট বন্ধ রাখা হয়েছে। এমনকি আপনি নিজে উপস্থিত থাকেন নি সেইসময়। বিধানসভার অধিবেশন শুরু হওয়ার আগে রাজ্যপালের ভাষণ সম্প্রচার না করা জরুরি অবস্থার সামিল। যদিও মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালের বক্তব্য কিন্তু দেখানো হচ্ছে”।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার এর বিরুদ্ধে বিধানসভায় হস্তক্ষেপ করা নিয়ে অভিযোগ করেছিলেন বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি এদিন চিঠিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন রাজ্যপাল।

অন্যদিকে, বিধানসভার স্পিকারের রাজ্যপালের বিল শুইনা করে ফেরত পাঠানোর অভিযোগে তিনি জানান, “রাজভবনে একাধিক বিল ফেরত পাঠানো হয়নি এবং আমি সই করিনি বলে অভিযোগ করা হয়েছে। এই অভিযোগ খুব দুঃখজনক। আমি কোন বিল ফেলে রাখি নি শুধু মাত্র দুটি মিলে ত্রুটি থাকায় তা পড়ে রয়েছে।”

এদিকে রাজ্যপালের ভাষণ বন্ধ রাখা নিয়ে যখন সঙ্ঘাত চরমে তখন বিধানসভার তরফে অবশ্য জানানো হয়েছে, এক্ষেত্রে কোন সংঘাতের বিষয় নেই। বরং অতিমারি পরিস্থিতির জন্যই এই নিয়ম জারি করা হয়েছে।