টাকার ব্যাগ নিয়ে ছুট দিতেই, মুহূর্তেই ঠিক হয়ে গেল ভিখারির ব্যান্ডেজ করা ভাঙা পা! ভাইরাল ভিডিও

টাকার ব্যাগ নিয়ে ছুট দিতেই, মুহূর্তেই ঠিক হয়ে গেল ভিখারির ব্যান্ডেজ করা ভাঙা পা! ভাইরাল ভিডিও
টাকার ব্যাগ নিয়ে ছুট দিতেই, মুহূর্তেই ঠিক হয়ে গেল ভিখারির ব্যান্ডেজ করা ভাঙা পা! ভাইরাল ভিডিও / ছবি সৌজন্যে- Screenshot from video Tweeted by @hvgoenka

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ কী কাণ্ড ভাবুন একবার! পথচলতি আমরা অনেক মানুষকেই দেখে থাকি, যারা রাস্তাঘাটে ভিক্ষা করে দিন গুজরান করে থাকেন। তাই বলে নকল ভিখারি!

শুধু রাস্তাঘাটেই নয়, মন্দির, মসজিদ, স্টেশনে, জনবহুল এলাকা, শপিংমলের বাইরে প্রচুর সংখ্যক মানুষকে ভিক্ষা করতে দেখা যায়। কখনও মাকে দেখা যায়, সন্তান কোলে নিয়ে ভিক্ষা করতে। আবার কখনও কখনও ছোট ছোট শিশুদের ময়লা জামাকাপড় পরিয়ে রাস্তায় নামানো হয়, কখনও টাকা আবার কখনও খাবার চাইতে। আবার সদ্যোজাত শিশুকেও ভাড়া দেওয়া হয়, তাকে কোলে নিয়েও ভিক্ষা করতে। স্টেশনের ধারে, বা ব্যস্ত রাস্তায় সেইসব শিশুদের শুইয়ে রেখে ভিক্ষা করেন পেশাদার মহিলারা। এসব দেখে বোঝাই যায় যে, মানুষ টাকার জন্য কতো কিছুই না করতে পারে।

এত মিথ্যের পরেও, এরা সৎ পথে উপার্জন করার রাস্তায় হাঁটতে মোটেও আগ্রহী নন। বিশেষ করে, দুঃস্থ মানুষের জন্য সরকার নানা ব্যবস্থা করলেও, তাঁরা সেই সুযোগ নিতে চান না। তবে, এবার যে ভিডিওর প্রসঙ্গে এই প্রতিবেদন, তা প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত দেখলে, বুঝতে পারবেন, ভিক্ষা করতে গিয়ে এই ধরনের কিছু মানুষ কতদূর পর্যন্ত যেতে পারেন।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে যা দেখা গেছে, তা এক কথায় বিরক্তিকর এবং অসহ্য। সম্প্রতি এই ভিডিও শেয়ার করেছেন, ব্যাবসায়ী হর্ষ গোয়েঙ্কা। তিনি তাঁর ট্যুইটার হ্যান্ডেলে ভিডিটিও শেয়ার করে বলেছেন, ‘মিরাকেল হল..’। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, রাস্তার মাঝখানে বসে একজন লোক ভিক্ষা করছে। সে হাঁটতে পারে না। একটা পা সাদা মোটা ব্যান্ডেজে বাঁধা বা প্লাস্টার করা। সেই পা দেখিয়ে ওই ভিখারি মানুষের থেকে সাহায্য চাইছে। পথচলতি অনেক মানুষ ওই ব্যক্তির অসহায় অবস্থা দেখে, যথাসাধ্য টাকা দিয়ে সাহায্যও করছেন। এমন সময় এক যুবক ওই রাস্তা দিয়েই যাচ্ছিলেন। তিনি ওই ব্যক্তির আকুতি শুনে এগিয়ে আসে্ন।

প্রথমে ওই যুবক ওই ভিখারিকে কিছু টাকা দেন। এরপরই ঘটে আসল ঘটনা, যা চমকে দেওয়ার মতো। ওই যুবক টাকার ব্যাগ নিয়ে ছুট দেয়। মজার কথা হল, এতক্ষণ ধরে যে ব্যক্তি পা ভাঙা নিয়ে ভিক্ষা করছিল, সে সঙ্গে সঙ্গে উঠে দাঁড়িয়ে ওই ব্যক্তির পিছু নেয়। এই কাণ্ড দেখে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হতভম্ব হয়ে যান।

জানা গিয়েছে যে, বেশ অনেকদিন ধরেই ওই এলাকায় ভাঙা পা দেখিয়ে ভিক্ষা করছিল ওই ব্যক্তি। কিন্তু আসলে পুরোটাই ছিল মিথ্যে। তার পা মোটেও ভাঙা ছিল না। মিথ্যে কথা বলে, মানুষের সমবেদনা আদায় করে ভিক্ষা করাকেই সে নিজের পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছিল। ওই যুবক তা বুঝতে পেরেছিলেন। তাই ভিখারির সঙ্গে ওইরকম চালাকি করেন। এই ঘটনা ওই সময় সেখানে থাকা কয়েকজন ক্যামেরাবন্দিও করেন।

পরে তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে যায়। পরে ওই ভিখারিকে এ প্রসঙ্গে জেরা করা হলে, কোনও উত্তর দিতে পারে না সে। এলাকা ছাড়া করা হয় ওই ভিখারিকে। তবে এটা প্রথমবার নয়, প্রতিনিয়ত এমন ঘটনা ঘটে চলেছে আমাদের চারপাশে। মিথ্যে নাটক করে, টাকা উপার্জনকে বেছে নিচ্ছে কিছু মানুষ প্রতি মুহূর্তে। ভিডিওটি শেয়ার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে যায়। সকলে শেয়ার ও মন্তব্য করতে থাকেন। সকলেই ভিখারির মিথ্যের মুখোশ ছিঁড়ে ফেলা যুবকের বুদ্ধির প্রশংসা করেছেন।