ভয়াবহ দৃশ্য! চাপ চাপ ফেনায় ভরা যমুনার জলে ছট পুজোর প্রথম দিনে ভক্তদের পুণ্যস্নান, দেখুন ভিডিও

ভয়াবহ দৃশ্য! চাপ চাপ ফেনায় ভরা যমুনার জলে ছট পুজোর প্রথম দিনে ভক্তদের পুণ্যস্নান, দেখুন ভিডিও
ভয়াবহ দৃশ্য! চাপ চাপ ফেনায় ভরা যমুনার জলে ছট পুজোর প্রথম দিনে ভক্তদের পুণ্যস্নান, দেখুন ভিডিও

চাপ চাপ বিষাক্ত ফেনায় ভরেছে যমুনার জল। তার মধ্যেই ছট পুজোর প্রথম দিনের পুণ্যস্নান সারলেন হাজার হাজার পুণ্যার্থী। রবিবার দিল্লির কালিন্দি কুঞ্জের কাছে যমুনা নদীতে বিষাক্ত ফেনা ভাসতে দেখা গিয়েছিল। কিন্তু অন্য উপায় না থাকায় সোমবার ওই জলেই স্নান সারেন এলাকার পুণ্যার্থীরা৷ তবে তারপর থেকেই আতঙ্কে ভুগছেন এলাকাবাসী।

ভয়াবহ দৃশ্য! চাপ চাপ ফেনায় ভরা যমুনার জলে ছট পুজোর প্রথম দিনে ভক্তদের পুণ্যস্নান, দেখুন ভিডিও
ভয়াবহ দৃশ্য! চাপ চাপ ফেনায় ভরা যমুনার জলে ছট পুজোর প্রথম দিনে ভক্তদের পুণ্যস্নান, দেখুন ভিডিও

আজ ছিল ছট পুজোর প্রথম দিনের ‘Nahay Khay’ পর্ব। অন্যান্যবারের মতো এবারও যমুনার পাড়ে ভিড় জমিয়েছিলেন দিল্লিবাসী। তবে যমুনা এবার দূষণের গ্রাসে৷ সাদা ফেনায় ভরে উঠেছে জল। তবে সেসবের পরোয়া না করে সেই দূষিত জলেই স্নানের জন্য নেমে পড়েন পুণ্যার্থীরা। পুণ্য লাভের আশায় মগে করে জল তুলে মাথায় ঢালতে থাকেন। অনেকে আবার নদীর এমন অবস্থা দেখে জলে নেমে সেলফি তুলতে শুরু করে দেন। তবে এমন মাত্রাছাড়া দূষণের প্রভাব দেখে চিন্তিতও হয়ে উঠেছেন অনেকে।

ভয়াবহ দৃশ্য! চাপ চাপ ফেনায় ভরা যমুনার জলে ছট পুজোর প্রথম দিনে ভক্তদের পুণ্যস্নান, দেখুন ভিডিও
ভয়াবহ দৃশ্য! চাপ চাপ ফেনায় ভরা যমুনার জলে ছট পুজোর প্রথম দিনে ভক্তদের পুণ্যস্নান, দেখুন ভিডিও

উল্লেখ্য, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশে ফসলের গোড়া পোড়ানোকে ঘিরে গত কয়েক বছর ধরেই এই সময়ে দিল্লিতে দূষণ মাত্রা ছাড়ায়। এ বছর আবার যমুনায় অতিরিক্ত পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে অ্যামোনিয়ার মাত্রা। ফলে শনিবার সন্ধ্যা থেকেই দিল্লির জল সরবরাহ ব্যাহত। এদিনের ছট পুজো উপলক্ষে স্নানের পর সেই দূষণ আরও বেড়েছে। ফেনার পরিমাণ ক্রমশ বর্ধমান।

পাশাপাশি দিল্লির সামগ্রিক বায়ুর মানও বেশ গুরুতর। রবিবার সকাল ৬টা ১৫ মিনিট নাগাদ বায়ুর গুণমান (AQI) সূচক ছিল ৪৩৬। দ্য আর্থ সিস্টেম অফ এয়ার কোয়ালিটি অ্যান্ড ওয়েদার ফোরকাস্টিং অ্যান্ড রিসার্চ (SAFAR) মন্ত্রক তরফে জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে দিল্লির AQI ছিল ৪৩৭। সেই সময় বাতাসে সূক্ষ্ম কণা পদার্থ (PM) ২.৫-র ঘনত্ব ছিল ৩১৮। সূক্ষ্মকণা পদার্থ ১০-র ঘনত্ব ৪৪৮।