ধোনির বিষয়ে এই সহজ প্রশ্নের উত্তর দিতে না পেরে এক্সপার্টের সাহায্য নিলেন সৌরভ-শেহবাগ!

ধোনির বিষয়ে এই সহজ প্রশ্নের উত্তর দিতে না পেরে এক্সপার্টের সাহায্য নিলেন সৌরভ-শেহবাগ!
ধোনির বিষয়ে এই সহজ প্রশ্নের উত্তর দিতে না পেরে এক্সপার্টের সাহায্য নিলেন সৌরভ-শেহবাগ!

দীর্ঘ এক বছর পর টেলিভিশনের পর্দায় ফের ফিরে এসেছে ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’। গত সপ্তাহ থেকেই শুরু হয়েছে ‘কেবিসি’র নতুন ১৩ নম্বর সিজন। আর কেবিসি-র এই নতুন সিজনে শানদার শুক্রবার পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে এসেছিলেন প্রাক্তন ভারতীয় দুই ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলি ও বীরেন্দ্র শেহবাগ। শো চলাকালীন সঞ্চালক অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে নানা খুনসুটিতে মাতেন দু’জনে। তবে এই শো-তেই প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে নিয়ে করা একটি সহজ প্রশ্নের উত্তর দিতেই হিমশিম খেতে দেখা যায় দুই প্রাক্তন ক্রিকেটারকে।

কেবিসিতে সৌরভ গাঙ্গুলী এবং বীরেন্দ্র শেহবাগকে ক্রিকেট সম্পর্কিত একটি প্রশ্ন করেছিলেন প্রশ্নকর্তার ভূমিকায় থাকা বিগ-বি। সেই প্রশ্নের উত্তরটিই ছিল ধোনি সম্পর্কিত। কিন্তু প্রথমে সে উত্তর দিতে না পেরে বাধ্য হয়ে এক্সপার্টের সাহায্য নিতে হয় সৌরভ-শেহবাগকে। প্রশ্নটি ছিল, ট্রাভিস ডাউলিনের উইকেট, কোন প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়কের একমাত্র আন্তর্জাতিক উইকেট? এর সঙ্গে অপশন ছিল মোট ৪টি। ১. এমএস ধোনি, ২. মহম্মদ আজহারউদ্দিন, ৩. সুনীল গাভাসকার ও ৪. রাহুল দ্রাবিড়।

এর উত্তরটিই হল, এমএস ধোনি। কিন্তু সৌরভ ও শেহবাগ প্রশ্ন দেখেই বিভ্রান্তিতে পড়ে যান। দু’জনে দুটি আলাদা উত্তর দেন। সৌরভ সুনীল গাভাসকারের নাম বলেন আর শেহবাগ আজহারউদ্দিনের। এরপর দুজনেই বলতে শুরু করেন, আমরা একে অপরের সঙ্গে একমত নই। শেষমেশ তাঁরা বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেন। সেই বিশেষজ্ঞই তখন সঠিক উত্তরটি দিয়ে জানান। ২০০৯ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে খেলেছিলেন ট্রাভিস ডাউলিন। ওই ম্যাচে ভারতীয় ক্যাপ্টেন মহেন্দ্র সিং ধোনি, দীনেশ কার্তিককে উইকেটকিপিংয়ের দায়িত্ব দেন এবং নিজে বোলিং করে ডাউলিনের উইকেটটি নেন। ওই ম্যাচে ধোনি আরেকটি উইকেট পেলেও আম্পায়ার তা প্রত্যাখ্যান করে দেন। তাই ধোনির নামে ওই একটি মাত্রই আন্তর্জাতিক উইকেট রয়েছে।

এক্সপার্টের সাহায্য নিয়ে এরপর সঠিক উত্তর দিয়ে সেই রাউন্ড জিতে নেন সৌরভ-শেহবাগ। কেবিসির ওই পর্ব থেকে তাঁরা মোট ২৫ লক্ষ টাকা জিতে ফেরেন। যদিও মোট ৪টি হেল্প লাইনই ব্যবহার করতে দেখা যায় তাঁদের।