কাবুলে বন্দুক ঠেকিয়ে এক ভারতীয় ওষুধ ব্যবসায়ীকে অপহরণ করল তালিবানরা!

কাবুলে বন্দুক ঠেকিয়ে এক ভারতীয় ওষুধ ব্যবসায়ীকে অপহরণ করল তালিবানরা!
কাবুলে বন্দুক ঠেকিয়ে এক ভারতীয় ওষুধ ব্যবসায়ীকে অপহরণ করল তালিবানরা! / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ কাবুলে ক্ষমতায় ফিরেছে তালিবান। ক্ষমতায় ফিরে যতই তারা নিজেদের ভাবমূর্তি বদলানোর কথা বলুক না কেন, আগের তালিবান আর আজকের তালিবানের মধ্যে যে কোনও তফাৎ নেই, তা স্পষ্ট হয়ে গেছে নানা ঘটনার মধ্যে দিয়ে। এবার এক ভারতীয় ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করল তালিবান। আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে ওই অপহৃত ব্যবসায়ীর একটি দোকান রয়েছে।

সূত্রের খবর, দোকানে যাওয়ার সময় বাঁশরি লাল আন্দে নামে ওই ব্যক্তিকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগ। ইতিমধ্যেই বিদেশ মন্ত্রকের কাছে সেই রিপোর্ট এসেছে। জানা গিয়েছে, অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার পর তাঁর কয়েকজন সঙ্গী কোনোরকমে পালিয়ে বেঁচেছেন। কিন্তু তার আগে তাঁদের উপর তালিবানরা নির্মম অত্যাচার করে।

আফগান বংশোদ্ভূত অপহৃত ওই ব্যক্তি বাঁশরি লাল আন্দে আদতে ভারতের নাগরিক। দিল্লিতে তাঁর পরিবার রয়েছে। তাঁদের কাছেও অপহরণের খবর এসে পৌঁছেছে। জানা গিয়েছে, কাবুলে ওষুধের ব্যবসা করেন বাঁশরি লাল। মঙ্গলবার সেখানে যাওয়ার পথে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। ‘ইন্ডিয়ান ওয়ার্ল্ড ফোরাম’-এর প্রেসিডেন্ট তথা শিখ সমাজকর্মী পুনীত সি চন্দলোক এই তথ্য জানিয়েছেন। জানা গিয়েছে, প্রত্যেকদিনের মতোও মঙ্গলবার সকালেও গাড়িতে চেপে ওষুধ দোকানের দিকে রওনা হয়েছিলেন বাঁশরী লাল। তাঁর সঙ্গে দোকানের কয়েকজন কর্মীও ছিলেন।

সূত্রের খবর, আচমকাই গাড়ির পিছন দিক থেকে আঘাত করা হয়। এরপর বন্দুকের নল ঠেকিয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। তাঁর সবুজ রঙের টয়োটা গাড়িতেই অপহরণকারীরা তাঁকে নিয়ে যায় বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা।

অন্যদিকে, এই বিষয়ে তালিবানের মুখপাত্র সুহেল শাহিন জানান, তাঁর কাছে এই অপহরণের কোনও তথ্য নেই। তবে তিনি এ বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছেন বলেও জানিয়েছেন। পুনীত সিং জানিয়েছেন, ওই ব্যক্তিকে অপহরণের খবর ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে বিদেশমন্ত্রককে। এই ঘটনায় যাতে ভারত সরকারের তরফে দ্রুত কোনও পদক্ষেপ করা হয়, সেই আর্জিই জানিয়েছেন পুনীত।