ছাদ ফুঁড়ে উল্কাপাত! মাত্র ৩০-এই রাতারাতি কোটিপতি

একেই বলে, উপরওয়ালা যখন দেন তো ছপ্পড় ফুঁড়ে দেন! এমন ঘটনার সাক্ষী ইন্দোনেশিয়ায় জোশুয়া হুতাগালুং। বানাতেন কফিন। আচমকাই তাঁর বাড়ির ছাদ ফুঁড়ে এসে পড়ে উল্কা পিণ্ড। ব্যস, রাতারাতি হয়ে গেলেন কোটিপতি। বাড়ির ছাদ ফুঁড়ে এসে পড়া এক মিলিয়ন পাউন্ডের (প্রায় ৯.৮ কোটি টাকা) একটি উল্কা বিক্রি করে নিশ্চিন্ত করে ফেললেন নিজের ভবিষ্যত। হুতাগালং যখন তাঁর বাড়ির বাইরে বলে কাজ করছিলেন তখনই হঠাৎ টিনের ছাদে এসে পড়ে একটি ২.১ কেজি ওজনের গ্রহাণুর অংশ।

তিনি পরে সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘এ সময় বাড়ির টিনের ছাদটি ভেঙে যায়। শব্দটি এত জোরে ছিল যে বাড়ির অংশগুলিও কাঁপছে। তল্লাশির পরে খেয়াল করলাম বাড়ির টিনের ছাদটি ভেঙে গেছে। আমি যখন এটি তুলে আনি পাথরটি তখনও গরম ছিল।’ তিনি উল্কাপিণ্ডের ছবিগুলি ফেসবুকে শেয়ার করেছেন।

ইন্ডিপেন্ডেন্টের মতে, উল্কাটি কার্বনিয়াস কনড্রাইট। এটি একটি অত্যন্ত বিরল জাতের উল্কাপিণ্ড। যার আনুমানিক বয়স সাড়ে ৪ বিলিয়ন বছর। এর দাম প্রতি গ্রাম প্রায় ৬৪৫ পাউন্ড।

জোশুয়া হুতাগালং এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বিশেষজ্ঞ সংগ্রাহক – জ্যারেড কলিন্সের কাছে এই রকটি বিক্রি করেছেন। খবর, কলিন্স আবার এটি সংগ্রাহক জে পি পাটেকের কাছে ফের বিক্রি করেন।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.