মুখ্যমন্ত্রীকে সাংবিধানিক দায়িত্ব মনে করিয়ে দিয়ে, ফের টুইট রাজ্যপালের

মুখ্যমন্ত্রীকে সাংবিধানিক দায়িত্ব মনে করিয়ে দিয়ে, ফের টুইট রাজ্যপালের
মুখ্যমন্ত্রীকে সাংবিধানিক দায়িত্ব মনে করিয়ে দিয়ে, ফের টুইট রাজ্যপালের

ফের সংঘাত চওড়া হচ্ছে রাজ্য ও রাজ্যপালের। জগদীপ ধনকরের শীতলকুচি সফর নিয়ে ফের শুরু হয়েছে পত্রাঘাত। গতকালের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যপালের শীতলকুচি সফর নিয়ে কড়া চিঠি দিয়েছেন। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই পাল্টা চিঠি দিয়েছেন রাজ্যপালও। এরপর বৃহস্পতিবার সাত সকালে ফের একবার টুইট করে মুখ্যমন্ত্রীকে বিঁধলেন তিনি। এদিন মুখ্যমন্ত্রীকে সাংবিধানিক দায়িত্ব মনে করিয়ে দিয়ে এই পরিস্থিতিতে সবার একজোট হয়ে কাজ করার বার্তা দিলেন তিনি।

প্রথা ভেঙে রাজ্যপাল রাজ্যকে না জানিয়েই জেলা সফর করছেন। অভিযোগ করে গতকাল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করার চিঠি দেন রাজ্যপাল কে। এখানে মুখ্যমন্ত্রী লিখেন, রাজ্যপাল যে সমস্ত জেলায় ভুগছেন সেখানের প্রশাসনকে জানানো আবশ্যক। কিন্তু রাজ্যপাল কোন রকম ভাবে না জানিয়ে জেলা সফর করছেন যা প্রথাবিরোধী। এরপরে মুখ্যমন্ত্রীকে পাল্টা চিঠি দেন রাজ্যপালও। সেখানে তিনি রাজধর্মের কথা উল্লেখ করেন।

বৃহস্পতিবার সকালে সেই চিঠির ছবি পোস্ট করে টুইট করেন তিনি। লেখেন, “আমিও আপনি দুজনেই সাংবিধানিক দায়িত্বপ্রাপ্ত। শপথ নেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমরা সংবিধান মেনে চলতে বাধ্য। আমি জানি আপনি অত্যন্ত সংবিধান মানে না সংবিধান কখনো এড়ানো যায় না।”একইসঙ্গে তিনি সংবিধান মেনে এবং সাংবিধানিক দায়িত্ব পালনের জন্য জেলা সফর করছেন বলে জানিয়েছেন।

শুনব তো আজকেই শীতলকুচিতে যাওয়ার কথা রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরের। এদিন বিএসএফের হেলিকপ্টার করে সেখানে যাবেন তিনি। পাশাপাশি আসামেও যাবেন বলে জানিয়েছেন রাজ্যপাল। আগামীকাল শুক্রবার সকাল ৯ টা ৪৫ মিনিটে বিএসএফের হেলিকপ্টার করে আসামে যাওয়ার কথা তার।