আন্তর্জাতিক

সেনাবাহিনীকে মানসিকভাবে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত থাকার নির্দেশ জিনপিংয়ের, অশনি সংকেত দেখছে বিশেষজ্ঞমহল

দেশের সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিলেন চীনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং। আজ চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা জিনহুয়া-তে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, রাষ্ট্রীয় সেনাবাহিনীকে চূড়ান্ত সতর্ক থাকার বার্তা দিয়েছেন জিনপিং। শুধু তাই নয়, সেনাবাহিনীর সদস্যদের “মানসিকভাবে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত” থাকার কথাও বলেছেন তিনি।

জিনপিংয়ের কথায়,” সেনাবাহিনীকে সম্পূর্ণভাবে অনুগত, খাঁটি এবং নির্ভরযোগ্য হতে হবে দেশের প্রতি।” তবে এই মন্তব্য শুধুমাত্র ভারতকে উদ্দেশ্য করে নয়, এমনটাই মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

গত বেশ কয়েক মাস ধরে সীমান্ত সমস্যাকে কেন্দ্র করে ভারত- চীন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে। কিন্তু ভারতের পাশাপাশি চায়নার নতুন শত্রু এখন আমেরিকা।

কিছুদিন আগেই তাইওয়ানে একটি মার্কিন যুদ্ধজাহাজ দেখা যাওয়ায় সুর চড়িয়েছিল বেজিং। এরপর বেজিং এবং ওয়াশিংটনে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক প্রতিদিন খারাপ হয়ে চলেছে।

একাধিক সময় ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি চীনের উহান ল্যাবে এবং এটি মানব উৎপাদিত ভাইরাস। সম্প্রতি কোয়াড বৈঠকে মার্কিন সেক্রেটারি মাইক পম্পেও দাবি করেছিলেন, চীনের উহান যাবে এই ভাইরাস তৈরি হয়েছে এবং তথ্য চাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে চীনের কমিউনিস্ট পার্টি।

স্বাভাবিকভাবেই এই পরিস্থিতিতে ভারতের থেকেও চীনের বড় শত্রু হয়ে দাঁড়িয়েছে আমেরিকা। তাই এই সামগ্রিক পরিস্থিতিতে চীনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিংয়ের এই মন্তব্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের কথায়, আমেরিকা এবং চীনের মধ্যে দুটি শক্তিধর দেশ যদি মুখোমুখি হয় সেক্ষেত্রে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ অবশ্যম্ভাবিক। করোনা পরিস্থিতিতে বিশ্বব্যাপী মন্দা চলছে। তার ওপর আরও একটি যুদ্ধ গোটা মানবজাতির জন্য সংকট তৈরি করতে পারে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.

Back to top button