বাংলা নিয়ে বিতর্কিত টুইট! কঙ্গনার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হল কোলকাতা পুলিশে

বাংলা নিয়ে বিতর্কিত টুইট! কঙ্গনার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হল কোলকাতা পুলিশে
বাংলা নিয়ে বিতর্কিত টুইট! কঙ্গনার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হল কোলকাতা পুলিশে

বরাবরই স্রোতের বিপরীতে গিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে শিরোনামে থেকেছেন বি-টাউনের কন্ট্রোভার্সি কুইন কঙ্গনা রানাওয়াত। এবার পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে একাধিক টুইট করে ফের বিতর্কের মুখে অভিনেত্রী। এবারে জল এতটাই গড়িয়েছে যে তার এই বিতর্কিত টুইটের বিরুদ্ধে কলকাতা পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন আইনজীবী সুমিত চৌধুরী।

বরাবরই বিজেপির একনিষ্ঠ ভক্ত বলে পরিচিত কঙ্গনা রানাওয়াত। বারবার তার একাধিক বক্তব্যে প্রকাশিত হয়েছে সেই বিষয়টি। এবারে গতকাল পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনের ফল প্রকাশিত হওয়ার পরেই দেখা যায় ফের তৃতীয়বারের জন্য সরকার করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এতেই একের পর এক মমতা বিরোধী টুইট করেছেন কঙ্গনা। কোনও টুইটে পশ্চিমবঙ্গ কাশ্মীর হতে চলেছে বলে মন্তব্য করেছেন তো আবার কোথাও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে রাবণের সঙ্গে তুলনা করেছেন তিনি। আর এতেই বাংলায় বিদ্বেষ ও অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলে মনে করেছেন অনেকে।

ফল প্রকাশিত হওয়ার পরেই একটি টুইটে কঙ্গনা লিখেছেন, “বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গারা মমতার প্রধান শক্তি। পশ্চিমবঙ্গের হিন্দুরা আর সংখ্যাগরিষ্ঠতায় নেই। বাঙালি মুসলিমরা হলো ভারতের সবথেকে গরীব। বাংলায় একটি কাশ্মীর তৈরি হচ্ছে।” এখানেই না থেমে অন্য একটি টুইটে তাঁর আরও বক্তব্য, “আগামী দিনে বাংলায় রক্তস্নান হবে। সরকার হেরে যাওয়ার ভয়ে রক্তপিপাসু হয়ে উঠবে”। এছাড়াও একাধিক টুইট অভিনেত্রী অমিত শাহকে ট্যাগ করেছেন। সেখানে বিজেপি কর্মীদের উপর হওয়া অত্যাচারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন তিনি। পাশাপাশি এনআরসি, সিএএ নিয়েও সরব হয়েছেন।

বাংলা নিয়ে টুইট
বাংলা নিয়ে টুইট

তার এই একাধিক বিদ্বেষমূলক ট্যুইটের পরেই কলকাতা পুলিশকে মেইল করে অভিযোগ জানিয়েছেন ওই আইনজীবী। অভিযোগে তিনি জানিয়েছেন, “বাংলায় যে আইন-শৃঙ্খলা রয়েছে তার ভারসাম্য নষ্ট করতে চাইছেন কঙ্গনা। বিজেপির পক্ষ নিয়ে কথা বলতে গিয়ে বাংলায় অশান্তি ছড়াতে চাইছেন তিনি। বাঙালি এবং বাংলার বিরুদ্ধে অপমানজনক মন্তব্য করেছেন কঙ্গনা রানাওয়াত”।

আইনজীবীর এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে কলকাতা পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয় কিনা সেটাই এখন দেখার।