'বাংলার ঘরে ঘরে বিরাজ করুক অপার শান্তি'! করোনা-আরোগ্য কামনায় তারাপীঠে পুজো দিলেন মমতা
'বাংলার ঘরে ঘরে বিরাজ করুক অপার শান্তি'! করোনা-আরোগ্য কামনায় তারাপীঠে পুজো দিলেন মমতা

দেশের পাশাপাশি রাজ্যেও ভারী হচ্ছে করোনার পাল্লা। দিনের পর দিন বাড়ছে সংক্রমণের হার। চিকিৎসকদের প্রতিনিয়ত অক্লান্ত পরিশ্রমের পাশাপাশি সারা বাংলা জুড়ে চলছে রোগমুক্তির প্রার্থনা। এবার সেই প্রার্থনায় সামিল হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও৷ বাংলার মানুষের করোনা আরোগ্য কামনায় তারাপীঠের মন্দিরে পুজো দিলেন মমতা।

'বাংলার ঘরে ঘরে বিরাজ করুক অপার শান্তি'! করোনা-আরোগ্য কামনায় তারাপীঠে পুজো দিলেন মমতা
‘বাংলার ঘরে ঘরে বিরাজ করুক অপার শান্তি’! করোনা-আরোগ্য কামনায় তারাপীঠে পুজো দিলেন মমতা

আজ, শনিবার, তারাপীঠ মন্দিরে তারা মায়ের পায়ে পুজো দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফুল হাতে, মায়ের পায়ে মাথা ঠেকিয়ে সারা বাংলার মানুষের সুস্থতা কামনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যে করোনার প্রকোপ যেভাবে বেড়ে চলেছে, তাতে নিত্যদিনই বাড়ছে দুশ্চিন্তা। তাই বাংলার প্রত্যেক মানুষের মঙ্গল কামনা এবং শান্তির উদ্দেশ্যেই আজ পুজো দিলেন মমতা। পূজো হয় সম্পূর্ণ করোনা বিধি মেনেই। মুখ্যমন্ত্রীর মুখে ছিল মাস্ক৷ মন্দিরের পুজারিরাও সকলেই সারাক্ষণই মাস্ক পরে ছিলেন।

'বাংলার ঘরে ঘরে বিরাজ করুক অপার শান্তি'! করোনা-আরোগ্য কামনায় তারাপীঠে পুজো দিলেন মমতা
‘বাংলার ঘরে ঘরে বিরাজ করুক অপার শান্তি’! করোনা-আরোগ্য কামনায় তারাপীঠে পুজো দিলেন মমতা

পুজো শেষে নিজের সরকারি ফেসবুক পেজে কিছু ছবিও শেয়ার করেছেন মমতা। সেখানে তিনি লেখেন, “বাংলার প্রতিটি মানুষের মঙ্গল কামনায় আজ তারাপীঠে মায়ের কাছে প্রার্থনা করলাম। মায়ের আশীর্বাদে সুরক্ষিত থাকুক প্রতিটি পরিবার, জরামুক্ত হয়ে উঠুক ধরণী।” এরপর তিনি আরও যোগ করেন, “বাংলায় সুদৃঢ় হোক সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বুনিয়াদ, বিনাশ হোক সকল অশুভ শক্তির। বাংলার অঙ্গনে জ্বলে উঠুক শান্তি ও সম্প্রীতির মঙ্গলদীপ। ঘরে ঘরে বিরাজ করুক অপার শান্তি।” প্রসঙ্গত, আজ বীরভূমের ১১ প্রার্থীর জন্য ভার্চুয়াল সভা ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের৷ সভা শেষেই তারা মায়ের পায়ে পুজো দিতে যান তৃণমূল সুপ্রিমো।

 

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.