সিপিএমের দাবি মেনে ভোটের আগের দিনই নিরাপত্তা বাড়ল মীনাক্ষীর

সিপিএমের দাবি মেনে ভোটের আগের দিনই নিরাপত্তা বাড়ল মীনাক্ষীর
সিপিএমের দাবি মেনে ভোটের আগের দিনই নিরাপত্তা বাড়ল মীনাক্ষীর/image source: minakshi mukherjee facebook post

দ্বিতীয় দফার ভোট আগামীকাল। এই দফাতেই ভোট গ্রহণ হবে নন্দীগ্রামে। আর ঠিক তার আগের দিনই নিরাপত্তা বাড়ল নন্দীগ্রামের সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়ের। কিছু দিন আগেই মীনাক্ষীর জন্য বাড়তি নিরাপত্তা দাবি করেছিল বাম নেতৃত্ব। সেই দাবি মেনেই এবার নিরাপত্তা বাড়ানো হল তাঁর।

কমিশন সূত্রে খবর, সিপিএমের আবেদনের প্রেক্ষিতে মীনাক্ষীর  নিরাপত্তা বাড়িয়েছে নির্বাচন কমিশন। তাঁর সঙ্গে আগে একজন নিরাপত্তারক্ষী ছিল। তা বেড়ে হল ৪ জন।  অন্যদিকে এদিন, ফের একবার কমিশনে এসে অভিযোগ করেছেন সিপিএম নেতা রবীন দেব। তিনি অভিযোগ করে বলেন, “আগামিকাল দ্বিতীয় দফায় নির্বাচনের আগে বাইরে থেকে লোক জড়ো করা হচ্ছে। সীমানা সিল করতে বলেছি। ঘাটালে বাইরে থেকে লোক আসছে। গড়বেতা, শালবনীতে ভোট হয়ে গিয়েছে। সেখানে বাইরের লোক ঢুকছে। পশ্চিম মেদিনীপুর পুলিসের নামে ভুয়ো রিপোর্ট যাচ্ছে। ভোটাররাও প্রভাবিত হচ্ছেন।”

প্রসঙ্গত, প্রচার করতে বেরিয়ে বাধা দেওয়া হয়েছিল সংযুক্ত মোর্চা প্রার্থী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়কে। অভিযোগের আঙুল উঠেছিল তৃণমূল নেতা শেখ সুফিয়ানের দিকে। যদিও এই অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছে শাসক দল।

নন্দীগ্রামের দাউদপুর এলাকায় প্রচার করতে বেরোন সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। সেই সময় বেশ কয়েকজন যুবক ওই এলাকায় গিয়ে মীনাক্ষী কে এলাকা ছেড়ে চলে যেতে বলে। এরপরই বাম নেত্রীর সঙ্গে বচসায় জড়ায় ওই যুবকরা। পাশাপাশি ওই মীনাক্ষীর সঙ্গে থাকা সিপিএম কর্মী-সমর্থকদেরও হেনস্থা করা হয় বলে অভিযোগ করেছেন তারা।

এরপরেই এই নিয়ে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করে সিপিএম নেতৃত্ব। একই সঙ্গে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য ওই এলাকায় আরও বেশি করে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েনের দাবি করেছে বাম। পাশাপাশি এলাকায় রুটমার্চের দাবি জানিয়েছিল মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়ের নির্বাচনী এজেন্ট।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.