এবারের হাইভোল্টেজ ভোটে নন্দীগ্রাম আসনে মমতা-শুভেন্দুর বিপরীতে বাম প্রার্থী মীনাক্ষী

এবারের হাইভোল্টেজ ভোটে নন্দীগ্রাম আসনে মমতা-শুভেন্দুর বিপরীতে বাম প্রার্থী মীনাক্ষী
এবারের হাইভোল্টেজ ভোটে নন্দীগ্রাম আসনে মমতা-শুভেন্দুর বিপরীতে বাম প্রার্থী মীনাক্ষী

বংনিউজ২৪x৭ডিজিটাল ডেস্কঃ এবারের হাইভোল্টেজ নির্বাচনে নন্দীগ্রাম আসনে প্রার্থীর নাম ঘোষণা করল বাম-কংগ্রেস-আইএসএফ জোট সংযুক্ত মোর্চা। নন্দীগ্রামে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বাম প্রার্থী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। এদিন কলকাতায় তাঁর ঘোষণা করলেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। মমতা-শুভেন্দুর বিপরীতে বাম প্রার্থী মীনাক্ষী লড়বেন নির্বাচনে।

নন্দীগ্রামে সিপিএম প্রার্থী দেবে বলে ঘোষণা করেছিল আগেই। সেই মতই এবার সেখানে প্রার্থী হলেন ডিওয়াইএফআই নেত্রী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। উল্লেখ্য, প্রথম থেকেই হাইভোল্টেজ কেন্দ্র নন্দীগ্রাম। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখানে তৃণমূলের প্রার্থী হয়ে দাঁড়িয়েছেন। তাঁর বিপরীতে বিজেপি প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করিয়েছে সেখানকার ভূমিপুত্র শুভেন্দু অধিকারীকে। এরপর এই দুই হেভিওয়েট নেতৃত্বের বিরুদ্ধে সিপিএম প্রার্থী করল যুব সম্প্রদায়ের মুখ মীনাক্ষীকে।

এই আসনে মুখোমুখি হবেন তৃণমূল থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর বিরুদ্ধে দাঁড়াচ্ছেন বিজেপি থেকে শুভেন্দু অধিকারী। আজই মনোনয়ন জমা দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যদিকে ১২ তারিখ মনোনয়ন জমা দেবেন বিজেপির শুভেন্দু অধিকারী। শুভেন্দুর হয়ে নন্দীগ্রাম থেকে কাজ শুরু করবেন সদ্য বিজেপিতে যোগ মিঠুন চক্রবর্তীর। ১২ তারিখ শুভেন্দুর মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় সঙ্গে থাকবেন মিঠুন চক্রবর্তী।

এর মধ্যেই আবার জানা যায়, নন্দীগ্রাম আসনে প্রার্থী দিচ্ছে না আব্বাস সিদ্দিকির আইএসএফ। জোটের আলোচনার সময় জানা গিয়েছিল যে, নন্দীগ্রাম আসনে প্রার্থী দিতে চায় আব্বাসের আইএসএফ। শুধু তাই নয়, বামফ্রন্টের তরফে সেই আসন ছাড়ার বিষয়েও সবুজ সঙ্কেত পায় আইএসএফ। কিন্তু আব্বাসের দল এই আসনে উপযুক্ত প্রার্থী খুঁজে না পাওয়ার জন্য প্রার্থী দেয় সিপিএম। এ বাদেও আজ প্রকাশ করা হয়েছে বাকি পরবর্তী দফার ভোটের প্রার্থীদের তালিকা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এবারের নির্বাচনে ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়’ স্লোগানে প্রচার করছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাই নন্দীগ্রামে মমতার বিরুদ্ধে ‘মেয়ে’কেই প্রার্থী করার সিদ্ধান্ত নিল আলিমুদ্দিন। ভোট রাজনীতিতে তরুণ এবং নতুন মুখকে নামিয়ে দেওয়া হল দুই হেভিওয়েটের বিরুদ্ধে। সিপিএমের এক নেতা জানিয়েছেন, বাংলা নিজের মেয়েকে চায়। তবে অবশ্যই স্বচ্ছ ভাবমূর্তির, তরুণ মুখকে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.