কড়া বিধিনিষেধের জেরে রাজ্যে কিছুটা হলেও বাগে মারণ করোনা, দৈনিক সংক্রমণ ৬ হাজারের নিচে

কড়া বিধিনিষেধের জেরে রাজ্যে কিছুটা হলেও বাগে মারণ করোনা, দৈনিক সংক্রমণ ৬ হাজারের নিচে
কড়া বিধিনিষেধের জেরে রাজ্যে কিছুটা হলেও বাগে মারণ করোনা, দৈনিক সংক্রমণ ৬ হাজারের নিচে / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ রাজ্যে বিধানসভা ভোটের মুখে ঝড়ের গতিতে বাড়ছিল করোনা সংক্রমণ। এপ্রিলের শুরু থেকেই পরিস্থিতি খারাপ হতে শুরু করে। এরপর সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে, স্তব্ধ করে দেওয়া হয় গণপরিবহণ। কড়া বিধিনিষেধ জারি হয়। এই নিষেধাজ্ঞা জারির পর, কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণে এসেছে করোনার সংক্রমণ।

স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৫, ৮৮৭ জন। এই সংখ্যাটা আগের দিনের তুলনায় অনেকটাই কম। আবার সামান্য হলেও কম মৃত্যুর সংখ্যাও।

স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে, রাজ্যে প্রথম স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা জেলা। গত ২৪ ঘণ্টায় এই জেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১,১৮১ জন। এখানেও দৈনিক সংক্রমণ রবিবারের থেকে কম। এরপর দ্বিতীয় স্থানেই রয়েছে কলকাতা। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬১০ জন। বহুদিন বাদে কলকাতায় সংক্রমণের সংখ্যা এতো কম হল। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গেও করোনা সংক্রমণ নিম্নমুখী। এর জেরে এখন রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪,৩২,০১৯।

প্রতীকী ছবি

একদিনে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১০৩ জন। যা আগের দিনের তুলনায় সামান্য কম। দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যার নিরিখেও, প্রথম স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা। গত ২৪ ঘণ্টায় এই জেলায় করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৩২ জন। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কলকাতা। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৩ জনের। তবে, জলপাইগুড়িতে বেড়েছে মৃত্যুর সংখ্যা। একদিনে সেখানে করোনার বলি ১০ জন। এখনও পর্যন্ত করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৬, ৩৬২।

এদিকে একদিনে করোনাকে পরাস্ত করে ঘরে ফিরেছেন ১৪,৩৫২ জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা ১৩, ৮৮, ৭৭১। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৯৬. ৯৮ শতাংশ।