এবার কোভিড হানা ধোনির পরিবারে! করোনায় আক্রান্ত মাহির বাবা ও মা

এবার কোভিড হানা ধোনির পরিবারে! করোনায় আক্রান্ত মাহির বাবা ও মা
এবার কোভিড হানা ধোনির পরিবারে! করোনায় আক্রান্ত মাহির বাবা ও মা

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশজুড়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি করেছে মারণ করোনা! করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাজেহাল দেশ। এই পরিস্থিতির মধ্যেই শুরু হয়েছে আইপিএল। আজ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টিম কেকেআর-এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ময়দানে নামবেন চেন্নাইয়ের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। এর মাঝেই এল দুঃসংবাদ। করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনির বাবা পান সিং এবং মা দেবকী দেবী। এই মুহূর্তে তাঁরা উভয়েই রাঁচির একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত দেশ। প্রতিদিন ঝড়ের গতিতে বেড়েই চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। সুস্থতার হারও এই মুহূর্তে বেশ কম। দেশের মধ্যে বেশ কিছু রাজ্যে দেখা দিয়েছে বেডের সমস্যা। সঙ্গে দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের অভাবও। প্রতিদিন ভয়ঙ্কর দুঃস্বপ্নের মতো তাড়া করে বেড়াচ্ছে মারণ করোনা। সর্বকালীন রেকর্ড গড়ছে দৈনিক সংক্রমণ।

গত বছর যখন করোনা সংক্রমণ সবথেকে বেশি ছিল। তখনও এই এত সংখ্যায় সংক্রমণ হয়নি। দেশের করোনা পরিস্থিতি এতোটাই ভয়াবহ যে, আমেরিকাকেও সেই ভয়াবহতা ছাপিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে বিশ্ব-তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। একদিনে দেশে মারণ ভাইরাসের কবলে পরেছেন প্রায় ৩ লক্ষ মানুষ। প্রাণ হারিয়েছেন ২ হাজারের বেশি।

এই পরিস্থিতিতে সমস্ত করোনাবিধি মেনে ক্রিকেটার ও অন্যান্য স্টাফকে বায়ো-বাবলে রেখে চলছে আইপিএল। দর্শকশূন্য মাঠেই খেলছেন ক্রিকেটাররা। দর্শকশূন্য মাঠেই চলছে খেলা। টুর্নামেন্ট শুরুর আগেও সেখানেো থাবা বসিয়েছিল করোনা। আক্রান্ত হয়েছিলেন একাধিক ক্রিকেটার এবং গ্রাউন্ড স্টাফ। আর এবার ক্যাপ্টেন কুলের পরিবারে ঢুকে পড়ল এই মারণ ভাইরাস। জানা গিয়েছে, রাঁচির পাল্স সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে ভরতি ধোনির বাবা-মা। আপাতত তাঁদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তাঁদের বয়স এই মুহূর্তে সবথেকে বেশি চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে চিকিৎসক এবং পরিবারের সদস্যদের কাছে।

অন্যদিকে, আইপিএলের নিয়ম অনুযায়ী, টুর্নামেন্টের মাঝে বায়ো-বাবল ছেড়ে বেরনোর উপায় নেই ক্রিকেটারদের। সূত্রের খবর, এই মুহূর্তে মহেন্দ্র সিং ধোনি তাঁর বাবা-মায়ের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন না। প্রথম ম্যাচে হারলেও, অন্য দুটি ম্যাচে খুব ভালোভাবে জয় হাসিল করেছে তাঁর টিম চেন্নাই। তবে, এখন ব্যক্তিগত জীবনের এই কঠিন সময়ে, নিজেকে শক্ত ও স্বাভাবিক রেখে খেলতে পারা এবং দলের জন্য জয় ছিনিয়ে আনা সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ মাহির কাছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.