শনিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২২

‘নদিয়ায় দুর্ঘটনায় ১৮ জনের মৃত্যুতে টুইটে শোকপ্রকাশ মমতা-শাহের’, পাশে থাকার বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

০৪:৩২ পিএম, নভেম্বর ২৮, ২০২১

‘নদিয়ায় দুর্ঘটনায় ১৮ জনের মৃত্যুতে টুইটে শোকপ্রকাশ মমতা-শাহের’, পাশে থাকার বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ রবিবার নদীয়ায় মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার গভীর রাতে নদিয়া জেলার হাঁসখালি থানার ফুলবাড়িতে ম্যাটাডোর ও পাথরবোঝাই ট্রাকের সংঘর্ষে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদেহ দাহ করতে ২৫ জন নবদ্বীপে যাচ্ছিলেন। পথেই হাঁসখালি থানার ফুলবাড়ি এলাকায় পাথর বোঝাই লরির সঙ্গে সংঘর্ষ হয় গাড়িটির। এর জেরেই ১৮ জনের মৃত্যু হয়।

এই দুর্ঘটনায় মৃতদের উদ্দেশে শোকপ্রকাশ করলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। নিহতদের পরিবারকে সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি আহতদের দ্রুত আরগ্য কামনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

https://twitter.com/MamataOfficial/status/1464843359462182917

১৮ জন শ্মশানযাত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় দুর্গতদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য প্রদান করল রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ২ লাখ টাকা করে চেক তুলে দিলেন মন্ত্রী  উজ্জ্বল বিশ্বাস। ৩ জনের পরিবারের হাতে চেক তুলে দেওয়া হয়েছে কৃষ্ণনগরে। আর বাকিদের পরিবারের হাতে বাগদায় চেক দেওয়া হবে। এদিন টুইটে মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, ‘নদিয়ার দুর্ঘটনায় আমি মর্মাহত। মৃতদের পরিবারকে গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি। ঈশ্বর তাঁদের এই কঠিন সময় সহ্য করার ক্ষমতা দিন। নিহতদের পরিবারের পাশে রয়েছে রাজ্য সরকার। তাঁদের সবরকম ভাবে সাহায্য করা হবে।’

https://twitter.com/AmitShah/status/1464828722901499905

শোকপ্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও। তিনি টুইটে লিখেছেন, ‘পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলায় ঘটে যাওয়া পথ দুর্ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক। এই দুর্ঘটনায় প্রাণ হারানো মানুষদের প্রতি আমার সমবেদনা রইল। ঈশ্বর ওনাদের এই কঠিন পরিস্থিতিতে সহায় হোন। আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।’

https://twitter.com/jdhankhar1/status/1464814330805850122

এদিকে, এই দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি পথ নিরাপত্তার প্রচারের কথা বলেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে একটি গাড়ি ধাক্কা মারায় ১৮ জনের মৃত্যু এবং ৫ জন আহত হয়েছেন। এই ঘটনায় আমি শোকাহত। রাজ্য সরকার আহত ও মৃতদের পরিবারকে সাহায্য করবে বলে আশা রাখছি।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শিবানী মুহুরি নামে বছর ৯০-এর এক বৃদ্ধার মরদেহ সৎকার করতে নিয়ে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে শ্মশানযাত্রীবোঝাই ট্রাক। সেই দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১৮ জন। মৃতদের মধ্যে মহিলা ও শিশুও রয়েছে।