একটা হোয়াটস্যাপ ম্যাসেজেই মিলবে দ্বিতীয় ডোজ! মানুষের হয়রানি কাটাতে নতুন উপায় রাজ্যের

একটা হোয়াটস্যাপ ম্যাসেজেই মিলবে দ্বিতীয় ডোজ! মানুষের হয়রানি কাটাতে নতুন উপায় রাজ্যের
একটা হোয়াটস্যাপ ম্যাসেজেই মিলবে দ্বিতীয় ডোজ! মানুষের হয়রানি কাটাতে নতুন উপায় রাজ্যের/ প্রতীকী ছবি

ভ্যাকসিন নিতে গিয়ে নাজেহাল হতে হচ্ছে রাজ্যবাসীকে। প্রথম ডোজ কোনমতে মিললেও এখন অমিল দ্বিতীয় ডোজ। তাই যাদের তৃতীয় ডোজ নেওয়ার সময় হয়ে গিয়েছে তারা সময় মত সেই না পাওয়ায় কার্যত সমস্যায় পড়ছেন। সেই সমস্যা থেকে রাজ্যবাসীকে উদ্ধার করতে একটি হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর চালু করল পুরসভা ও স্বাস্থ্য দপ্তর। শনিবার এমনটাই জানিয়েছেন রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম।

এদিন ফিরহাদ হাকিম জানান, নতুন হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে মেসেজ করে অ্যাপোয়েন্টমেন্ট নিতে হবে টিকার জন্য। সে ক্ষেত্রে প্রথম কবে নেওয়া হয়েছে এবং প্রাপকের নাম জানাতে হবে। মূলত শহরের তিন জায়গায় এই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। কেবলমাত্র ৪৫ বছরের বেশি ব্যক্তিরাই এই সুযোগ পাবেন। এই তিন জায়গা সাউথ সিটি স্কুল, রক্সি সিনেমা এবং বিধান শিশু উদ্যান। হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরটি হল: ৮৩৩৩৫৯৯৯০০০।

অন্যদিকে রাজ্যজুড়ে আগামীকাল থেকে লকডাউন জারি হলেও জরুরী ভিত্তিতে পরিষেবা চালু থাকবে। সেক্ষেত্রে পুরসভার কর্মীদের আসতেই হবে। এবার তাদের যাতায়াতের জন্য গতবারের মতো বাস দেওয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রী। একই সঙ্গে কেউ যদি নিজের গাড়ি ভাড়া করে আসে তবে সেক্ষেত্রে সেই টাকাও পুরসভা দেবে বলে জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি কোন দপ্তর জরুরি ভিত্তিক পরিষেবা দেবার জন্য বাস চাইলে তা দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে এদিন।

অন্যদিকে ফের একবারে দিন কেন্দ্রের প্রতি টিকা নিয়ে বঞ্চনার অভিযোগ করেন তিনি। জানান, কেন্দ্রের কাছে তিন কোটি ভ্যাকসিন চাওয়া হলেও পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন এখনো পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। যদি পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন পাওয়া যেত তাহলে কলকাতাকে মাস্ক ফ্রি করে দেওয়া যেত বলেও এদিন মন্তব্য করেন ফিরহাদ হাকিম।