রাতারাতি সুর বদল! স্বল্প সঞ্চয়ের পুরনো হারই বজায় থাকছে, ট্যুইট কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের

রাতারাতি সুর বদল! স্বল্প সঞ্চয়ের পুরনো হারই বজায় থাকছে, ট্যুইট কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের / Image Source: Screengrab from Facebook Video Posted By @nirmala.sitharaman
রাতারাতি সুর বদল! স্বল্প সঞ্চয়ের পুরনো হারই বজায় থাকছে, ট্যুইট কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের / Image Source: Screengrab from Facebook Video Posted By @nirmala.sitharaman

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ বিজ্ঞপ্তি জারি করার পরেও, রাতারাতি নিজেদের অবস্থান বদল করল কেন্দ্র সরকার। জানিয়ে দেওয়া হল এখনই কমছে না স্বল্প সঞ্চয় এবং পিপিএফের সুদের হার। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের পক্ষ থেকে নয়া বিজ্ঞপি জারি করে বলা হয়েছে যে, ২০২০-২০২১ আর্থিক বছরের শেষে ত্রৈমাসিকের সুদের হারই নতুন আর্থিক বছরের প্রথম তিনমাস অব্যাহত থাকবে। বৃহস্পতিবার সকালে এই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বুধবার রাতে স্বল্প সঞ্চয়ের সুদের হার কমানোর বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল অর্থমন্ত্রক। এরপর বৃহস্পতিবার সকালেই সেই বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করে নেওয়া হয় এবং কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের পক্ষ থেকে নয়া বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

আজ অর্থাৎ ১ এপ্রিল থেকে কার্যকর হওয়ার কথা ছিল, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের সুদ কমানোর নির্দেশ৷ তবে এদিন, বৃহস্পতিবার, ভোরেই অর্থমন্ত্রী ট্যুইট করে জানান যে, এই নির্দেশিকা প্রত্যাহার করা হচ্ছে৷ ভুল করে এই বিজ্ঞপ্তি করা হয়েছিল বলে ট্যুইটে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ সাফাইয়ের সুরে জানান। গত অর্থবর্ষে স্বল্প সঞ্চয়ের সুদের হার যা ছিল, তা অপরিবর্তীত থাকছে৷ যার মানে, বিভিন্ন স্বল্প সঞ্চয় প্রকল্পে ৩১ মার্চ ২০২১ পর্যন্ত যে সুদের হার ছিল, তাই বহাল থাকবে৷

যদিও সেই যুক্তি মানতে কোনভাবেই রাজি নয় দেশের আমজনতা। আমজনতার যুক্তি ভোটের কথা ভেবেই নিজেদের আগের অবস্থান থেকে সরে দাঁড়াল কেন্দ্র। দেশের মধ্যে ৫ রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিধানসভা নির্বাচন চলছে। এর মধ্যে স্বল্প সঞ্চয়ে সুদ কমানো হলে, তার সরাসরি প্রভাব পড়তে পারে বিজেপির ভোট বাক্সে। আর সেই কথা বিবেচনা করেই কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিদ্ধান্তের রাতারাতি পরিবর্তন বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

উল্লেখ্য, বুধবার রাতে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের বিজ্ঞপ্তিতে মাথায় হাত পড়ে সাধারণ মানুষের৷ সেই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় যে, ২০২১-২২ অর্থবর্ষে স্বল্প সঞ্চয়ের উপর সুদের হার আরও কমানো হচ্ছে৷ ১ এপ্রিল থেকে নতুন সুদের হার লাগু হওয়ার কথা ছিল৷ বুধবার রাতে জানানো হয় যে, ২০২১-২২ অর্থবর্ষের প্রথম ত্রৈমাসিকে এনএসসি এবং পিপিএফ-এর মতো স্বল্প সঞ্চয় প্রকল্পগুলিতে সুদের হার ১.১ শতাংশ পর্যন্ত কমানো হচ্ছে৷ ব্যাঙ্কের সুদের হার কমতে থাকার জন্যই পাল্লা দিয়ে স্বল্প সঞ্চয়েও সুদের হার কমানো হল, বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়৷ এরপরই মোদি সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনা ওঠে দেশজুড়ে৷ এরপর আজ, সকালেই ড্যামেজ কন্ট্রোলে আসরে নামেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী, প্রত্যাহার করে নেওয়া হয় আগের বিজ্ঞপ্তি। তাই আপাতত স্বস্তি আমজনতার জন্য।

বুধবারের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছিল যে, এনএসসি, পিপিএফ, সিনিয়ার সিটিজেন স্কিমে সুদের হার উল্লেখযোগ্য ভাবে কমানো হচ্ছে৷ এ ছাড়াও এই প্রথমবার সেভিংস ডিপোজিটে বার্ষিক সুদের হার ৪ শতাংশ থেকে কমে ৩.৫ শতাংশ করার কথাও বলা হয়েছিল সেই বিজ্ঞপ্তিতে৷ টার্ম ডিপোজিটেও সুদের হার কমানোর কথা ঘোষণা করা হয়েছিল৷ অন্যদিকে, কন্যাসন্তানদের জন্য সুকন্যা সমৃদ্ধি স্কিমেও কমানো হয়েছিল সুদের হার৷ সুদের হার কমানোর কথা বলা হয়েছিল কিসান বিকাশ পত্রেও৷

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.