ভোট গণনার দিন ও পরের দিন দলীয় কার্যালয়েও করা যাবে না জমায়েত! নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

ভোট গণনার দিন ও পরের দিন দলীয় কার্যালয়েও করা যাবে না জমায়েত! নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের
ভোট গণনার দিন ও পরের দিন দলীয় কার্যালয়েও করা যাবে না জমায়েত! নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

ভোটের ফলাফল ঘোষণার দিন বা পরের দিন কোনভাবেই বিজয় মিছিল করা যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এবার সেই একই পথে হেটে কড়া নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। পাশাপাশি আদালতের তরফে রায় দিয়ে জানানো হয়েছে রাজনৈতিক দলগুলি নিজেদের দলীয় কার্যালয়ে কোনরকম জমায়েত করতে পারবে না।

রাজ্যে উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনা সংক্রমণ। গত বছরের শেষের দিকে সংক্রমণ সামান্য নিয়ন্ত্রণে এনে দিয়েছে সংক্রমনের গতি। এই পরিস্থিতিতে দেদার চলেছে মিছিল-মিটিং প্রচার। সেই সমস্ত কিছুতে বাধা দেয়নি নির্বাচন কমিশনও। অতিমারিতেই সম্পন্ন হয়েছে আট দফার নির্বাচন। আর এসব কিছুর জন্যই ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে করোনা গ্রাফ।

রাজ্যের এহেন বেহাল দশা দেখে মাদ্রাজ হাইকোর্ট তীব্র ভর্ৎসনা করেছে নির্বাচন কমিশনকে। আদালতের তরফে জানানো হয়েছে, রাজ্যের এই বেহাল পরিস্থিতির জন্য একমাত্র নির্বাচন কমিশন দায়ী। পাশাপাশি ভোট গণনার সময় কমিশন কি কি বিধি-নিষেধ গ্রহণ করছে তা অবিলম্বে আদালতকে জানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এরপরেই নড়েচড়ে বসেছে কমিশন। জানানো হয়েছে ভোট গণনার সময় কোনভাবেই বিজয় মিছিল করা যাবে না। পাশাপাশি প্রার্থীর সঙ্গে দুজনের বেশি গণনা কেন্দ্রের সামনে থাকতে পারবেন না।

এরপর শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টের তরফে কড়াকড়ি করে নতুন আদেশ দেওয়া হয়। আদালতের নতুন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দালের ডিভিশন বেঞ্চ এ দিন জানিয়ে দিয়েছে, ফল ঘোষণা উপলক্ষে কোনও রাজনৈতিক দলের কার্যালয়ে জমায়েত করা যাবে না। আদালত আরও জানায়, ফল ঘোষণার আগে হোক বা পরে, কোনও রাজনৈতিক দলের কোনও পার্টি অফিসে কোনও রকমের জমায়েত করা যাবে না। প্রসঙ্গত, শুক্রবার এই সংক্রান্ত বিষয়ে দায়ের হওয়া একটি জনস্বার্থ মামলার শুনানি চলাকালীন এই নির্দেশ দেয় হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দালের ডিভিশন বেঞ্চ।

বিভিন্ন মহল থেকে জল্পনা উঠেছিল, ঘোষণার দিন বিজয় মিছিল করলে সংক্রমণ মাত্রা ছাড়া হতে পারে। মিটিং মিছিল সমাবেশ হয়ে উঠতে পারে আবার করোনার ঊর্ধ্বমুখীতার কেন্দ্রবিন্দু। সেজন্যই নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ এরপরেও কলকাতা হাইকোর্টের তরফের সাফ জানিয়ে দেওয়া হল ফল ঘোষণার দিন বা তার পরের দিন কোনভাবেই রাজনৈতিক জমায়েত করা যাবে না। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কর্মী-সমর্থকদের এই নির্দেশ যথাযথ মেনে চলতে হবে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.