মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই, ২০২২

ভেড়ার গায়ে ৩৫ কেজির পশম! এমনই এক ভেড়া উদ্ধার হল অস্ট্রেলিয়ার জঙ্গল থেকে! রইলো ভিডিও

১২:৫৯ পিএম, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১

ভেড়ার গায়ে ৩৫ কেজির পশম! এমনই এক ভেড়া উদ্ধার হল অস্ট্রেলিয়ার জঙ্গল থেকে! রইলো ভিডিও

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার গভীর জঙ্গল থেকে উদ্ধার হল আস্ত এক ভেড়া। যার গায়ে প্রায় ৩৫ কেজির পশম! অস্ট্রেলিয়ার গভীর অরণ্য, মেলবোর্ন থেকে প্রায় ৬০ কিমি দূরে এজার মিশনস ফার্ম স্যাংচুয়ারির কাছ থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। মূলত পশুদের নিয়ে কাজ করা একটি সেচ্ছাসেবী সংগঠন ভেড়াটিকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। আপাতত তার নাম রাখা হয়েছে বারাক।

সংগঠনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, একজন সহৃদয় ব্যক্তি প্রথমে ভেড়াটিকে দেখে। তারপর সংস্থাটিতে খবর দিলে তারা গিয়ে বারাককে উদ্ধার করে। তখনই দেখা যায়, ভেড়াটির গায়ে ৩৫ কেজিরও বেশি পশম। যা প্রাপ্তবয়স্ক একটি ক্যাঙারুর ওজনের সমান। এই অতিরিক্ত ওজনের কারণে ভেড়াটি ঠিক মতো হাঁটতে বা বসতে পারছে না। এমনকি চোখের আশেপাশে পশম থাকার জন্য দেখতেও পারছে না সে। জানা যায়, বেশ কয়েক বছর ভেড়াটির গায়ের পশম ছেঁটে না ফেলার জন্যই তা এরকম বেড়ে গিয়েছে।

দেখুন সেই ভিডিও-

[embed]https://www.facebook.com/edgarsmission/videos/1150180268767705[/embed]

সাধারণত পশুচিকিৎসক থেকে বিশেষজ্ঞ প্রত্যেকের মতেই, বছরে অন্তত একবার ভেড়াদের গা থেকে পশম তুলে নেওয়া উচিৎ। তা না হলে পশমের পরিমাণ বাড়তে থাকে। যা আদতে ভেড়াদের ক্ষতিই করে। উদ্ধারকারী স্বেচ্ছাসেবী সংস্তাটির আধিকারিকও একমত এই ব্যাপারে। তিনি বলেন, বারাকের পশমের ওজন ৩৫.৪ কেজি। অথচ তার চেহারার ওজন ছিল অনেক কম। যা তার ক্ষতিই করেছে। তিনি আরও জানান, বারাকের কানে ট্যাগ লাগানোর ফুটো পাওয়া গিয়েছে। ফলে বোঝা যায় ও একসময় গৃহপালিত পশু ছিল। পরে হয়ত কোনও কারণে তাকে তারা ছেড়ে দেওয়া হয় বা বারাক পালিয়ে আসে। আশ্রয় নেয় জঙ্গলে। তাই বহু বছর তার গায়ের পশম গুলিকে ছেঁটে ফেলা হয়নি।

তবে উদ্ধার করার পর আপাতত বেশ সুস্থ স্বাভাবিকই রয়েছে বারাক। উদ্ধার হওয়া আরও কিছু ভেড়াদের সঙ্গেই রয়েছে সে। ইতিমধ্যেই তার গায়ের সব পশম ছেঁটে ফেলা হয়েছে। পাশাপাশি তার যাতে ওজন বাড়ে সেই চেষ্টাও চলছে। পশমের জন্য তার শরীরে কী কী ক্ষতি হয়েছে, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।