শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুবার্ষিকীর প্রাক্কালে, তাঁর মৃত্যুতে তদন্ত কমিশন চেয়ে, আদালতে জনস্বার্থ মামলা

শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুবার্ষিকীর প্রাক্কালে, তাঁর মৃত্যুতে তদন্ত কমিশন চেয়ে, আদালতে জনস্বার্থ মামলা
শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুবার্ষিকীর প্রাক্কালে, তাঁর মৃত্যুতে তদন্ত কমিশন চেয়ে, আদালতে জনস্বার্থ মামলা

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যু এখনও রহস্য অনেকেরই কাছে। অনেকেরই সংশয় রয়েছে, কীভাবে শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যু হয়েছিল সেই বিষয়ে। তাঁর মৃত্যু স্বাভাবিক না অস্বাভাবিক, তা নিয়েও নানা ধোঁয়াশা রয়েছে। উল্লেখ্য, আমীকাল তাঁর ৬৮ তম মৃত্যু দিবস। ১৯৫৩ সালে কাশ্মীরে মৃত্যু হয়েছিল তাঁর।

তার আগে তাঁর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে চেয়ে, কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হল। ১৯৫৩ সালের ২৩ জুন পুলিশি হেফাজতে মারা গিয়েছিলেন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়। প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছিল, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন শ্যামাপ্রসাদ। তার একদিন পরে তিনি মারা গিয়েছিলেন।

কিন্তু ২০০৪ সালে অটল বিহারী বাজপেয়ী দাবি করেছিলেন, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জহরলাল নেহরুর ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিলেন আশুতোষ মুখোপাধ্যায়ের পুত্র শ্যামাপ্রসাদ। স্বাধীন ভারতের প্রথম শিল্পমন্ত্রী ছিলেন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর, নেহরুর প্রথম মন্ত্রিসভায় স্থান পান তিনি। শোনা যায়, প্রথমে নেহরু তাঁকে মন্ত্রিত্ব দিতে অস্বীকার করেছিলেন। কিন্তু পরে, মহাত্মা গান্ধী ও সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের হস্তক্ষেপে তা সম্ভব হয়।

এই প্রসঙ্গে অটল বিহারী বাজপেয়ী সরকার বহুবার সরবও হয়েছিলেন। তবে, তিনবার প্রধানমন্ত্রী হয়েও বাজপেয়ী কোনওদিনই শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুতে তদন্ত কমিশন গঠনের কথা ভাবেননি। এরপর নরেন্দ্র মোদী দিল্লির ক্ষমতায় বসেন। তখন থেকে আজ পর্যন্ত এই বিষয়ে কোনও তদন্ত কমিশন গঠন হয়নি, শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুর আসল কারণ জানতে। অথচ শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়কেই ভারতীয় জনতা পার্টির প্রতিষ্ঠাতা মনে করা হয়। এবার সেই তদন্ত কমিশন গঠনের দাবি তোলা হল বাংলা থেকেই। কলকাতা হাইকোর্টে শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুর আসল তথ্য জানতে চেয়ে, জনস্বার্থ মামলা দায়ের করলেন আইনজীবী স্মরজিৎ রায় চৌধুরী।

তিনি দাবি করেছেন, আগের অটলবিহারী-জমানায় বা চলতি সময়ে মোদি-জমানায় যা জানা যায়নি, সেই বিষয়টি জানতেই তিনি মামলা করেছেন। তাঁর দাবি, শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুরহস্য জানতে গঠন করা হোক তদন্ত কমিশন। তিনি বলেন, ‘আমি চাই, এই রহস্যের অবসান হোক। প্রকৃত সত্য সামনে আসুক।’