বাড়িতে অক্সিজেনের যোগান অব্যাহত রাখতে লাগান এইসকল গাছগুলি

বাড়িতে অক্সিজেনের যোগান অব্যাহত রাখতে লাগান এইসকল গাছগুলি
বাড়িতে অক্সিজেনের যোগান অব্যাহত রাখতে লাগান এইসকল গাছগুলি

ঘরে অক্সিজেনের জোগান সঠিক রাখতে তুলসী, অ্যালোভেরা এই সকল গাছ লাগানোর পরামর্শ দিচ্ছেন পরিবেশবিদরা। করোনা ভাইরাস দেশের অক্সিজেন সংকট এনে দিয়েছে। হিন্দু বাড়িতে তুলসী গাছ পুজো করা হয়। প্রতিদিন গাছে জল দেওয়া হয়।

আগেকার লোকজন পড়াশোনা হয়তো খুব বেশি জানতেন না। তবুও তাঁরা অনেক বিজ্ঞানসম্মত কাজ করতেন। আসলে ঘরে তুলসী পাতার জুড়ি মেলা ভার। সর্দি-কাশিতে খুবই উপকারী। আবার ঘরের বাতাস দূষণমুক্ত রাখে তুলসী। তিনি আরও বলেন, “একটি তুলসী গাছ ২০ ঘন্টা পর্যন্ত অক্সিজেন সরবরাহ করে থাকে।

এছাড়াও কার্বন মনোঅক্সাইড, কার্বন ডাই অক্সাইড এবং সালফার ডাই অক্সাইডের মতো বিষাক্ত গ্যাস শোষণ করে ঘরের ভিতরে বাতাস পরিশুদ্ধ করে থাকে তুলসী। শুধু তুলসী নয় অন্দরসজ্জায় থাকা অ্যালোভেরার গুরুত্বও অপরিসীম। বাংলায় এই গাছকে ঘৃতকুমারী বলা হয়। এখন ঘরের বাতাস পরিশুদ্ধ করতে এয়ার পিউরিফায়ার বসাতে হচ্ছে।

কিন্তু একটা অ্যালোভেরা গাছ ঘরের বাতাসের গুনাগুন উন্নত করে দিতে পারে। একটি অ্যালোভেরা গাছ ৯টি এয়ার পিউরিফায়ারের কাজ করে থাকে। ইন্ডোর প্ল্যান্টেশনের মধ্যে স্নেক প্ল্যান্ট হলো সবথেকে জনপ্রিয় একটি গাছ। অনেক ঘরের ডাইনিং, বেডরুমে এই গাছ লাগিয়ে রাখেন। ঘরের সৌন্দর্যের পাশাপাশি এই গাছ বাতাসে টক্সিন শোষণ করে নেয় এই গাছ।