ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতিকে রুখতে কড়া নিদান প্রধানমন্ত্রীর

ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতিকে রুখতে কড়া নিদান প্রধানমন্ত্রীর
ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতিকে রুখতে কড়া নিদান প্রধানমন্ত্রীর

দেশজুড়ে করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের জেরে বিপর্যস্ত গোটা দেশ। দৈনিক করোনা-সংক্রমণ ভেঙে ফেলছে একের পর এক পুরানো রেকর্ড। এই অবস্থায় শনিবার রাতে রিভিউ মিটিংয়ে বসলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পর্যালোচনা বৈঠকে দেখা হয় দেশের করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলা করার দিকগুলো। আলোচনায় উঠে আসে দেশের ভ্যাকসিন মজুতের পরিমাণও। বিভিন্ন দফতরের উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরা বৈঠকে উপস্থিত থাকেন।

শনিবারের বৈঠক প্রধানমন্ত্রীকে রাজ্যগুলোর তরফের ভ্যাকসিনের যে আকাল দেখা দিয়েছে সেই কথা জানানো হয়। এরপরে বৈঠক থেকে নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছেন ভ্যাকসিনের উৎপাদন বাড়াতে হবে। সেইমতো নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রস্তুতকারী সংস্থা গুলিকে।

এছাড়াও বিভিন্ন রাজ্যে অক্সিজেন ওষুধ ভেন্টিলেটরের মতো প্রয়োজনীয় কোন জিনিস এখন আরো বেশি করে প্রয়োজন সেকথাও জানানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয়কে। এর ভিত্তিতেই নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছেন “গতবারের থেকেও এবারের করোনার বিরুদ্ধে লড়াই আরো দ্রুতগতিতে করতে হবে”।

অন্যদিকে, ট্রেসিং টেস্টিং এবং ট্রিটমেন্ট এর উপর জোর দেওয়ার কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি স্থানীয় প্রশাসনকে আরও সচেতন হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে

গত জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি মাসেই মনে হয়েছিল, স্বস্তি ফিরিয়ে করোনা কমছে। সম্ভবত তার পুরোপুরি বিদায়ের ক্ষণও এসেই গিয়েছে। কিন্তু এ বঙ্গ এখনও রঙ্গে ভরা। সেই রঙ্গের নাম ‘ভেরিয়্যান্ট’। করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে যা সবচেয়ে বেশি আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আতঙ্ক, কারণ, করোনাভাইরাসের এই নতুন রূপ (ভেরিয়্যান্ট) দ্রুত ‘মিউটেশন’ করে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.