Yaas বিপর্যয়ে পাশে থাকার আশ্বাস মোদির! বাংলা সহ তিন রাজ্যকে দেওয়া হচ্ছে ১ হাজার কোটি

Yaas বিপর্যয়ে পাশে থাকার আশ্বাস মোদির! বাংলা সহ তিন রাজ্যকে দেওয়া হচ্ছে ১ হাজার কোটি
Yaas বিপর্যয়ে পাশে থাকার আশ্বাস মোদির! বাংলা সহ তিন রাজ্যকে দেওয়া হচ্ছে ১ হাজার কোটি

Yaas বিপর্যয় সামলাতে বাংলা সহ তিন রাজ্যের পাশে দাঁড়ালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বাংলা, ওড়িশা এবং ঝাড়খণ্ড, এই তিন রাজ্যকে ১ হাজার কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ দেওয়ার কথা ঘোষণা করল কেন্দ্রীয় সরকার৷ বাংলা ও ঝাড়খণ্ডকে মিলিত ভাবে ৫০০ কোটি এবং ওড়িশাকে আরও ৫০০ কোটি টাকা দেওয়া হবে। এছাড়াও ইয়াসের তাণ্ডবে মৃতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথাও ঘোষণা করা হয়েছে৷

আজই বাংলায় ট্যুইট করে ইয়াস ঝড়ে বিপর্যস্ত সমস্ত অঞ্চলের পাশে থেকে পূর্ণ সাহায্যের আশ্বাস জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এদিন ওড়িশা এবং পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব মেদিনীপুরের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা আকাশ পথে পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী। ভুবনেশ্বর এবং কলাইকুন্ডায় পর্যালোচনা বৈঠকও সারেন৷ তারপরই ট্যুইটে সাহায্যের কথা জানিয়ে বাংলায় তিনি লেখেন, “কেন্দ্রীয় সরকার পশ্চিমবঙ্গের বোন ও ভাইদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করছে। ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের ফলে যে ক্ষতি হয়েছে, তার জন্য সম্ভাব্য সব রকমের সহায়তা দেওয়া হবে। আমি সকলের মঙ্গল কামনা করছি।”

পাশাপাশি এদিন কলাইকুন্ডায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের ক্ষয়ক্ষতির খতিয়ান তুলে ধরে কেন্দ্রের কাছে ২০ হাজার কোটি টাকার ক্ষতির দাবী করা হয়। এছাড়াও দিঘা এবং সুন্দরবনের জন্য আলাদা করে আরও ২০ হাজার কোটি টাকার ক্ষতিপূরণের প্রস্তাবও দিয়েছে রাজ্য সরকার। প্রসঙ্গত, ইয়াসের মোকাবিলায় প্রস্তুতির জন্য ওড়িশা এবং বাংলাকে আগেই যথাক্রমে ৬০০ এবং ৪০০ কোটি টাকা দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার৷ এবার বিপর্যয়ের পর আবারও আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করা হল।

ইতিমধ্যেই বাংলা, ওড়িশা ও ঝাড়খণ্ড, এই তিন রাজ্যে ক্ষতির পরিমাণ খুঁটিয়ে দেখতে বিভিন্ন মন্ত্রকের আধিকারিকদের নিয়ে প্রতিনিধি দল গঠন করা হয়েছে৷ তাঁরা গিয়ে সমস্তটা খতিয়ে দেখবেন৷ তারপরই কেন্দ্রের তরফে চূড়ান্ত আর্থিক সাহায্যের হাত বাড়ানো হবে। রাজ্যগুলির সঙ্গে এক সমন্বয়ে ত্রাণ এবং পুনর্গঠনের কাজ করা হবে বলেও দাবি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।