‘প্রধানমন্ত্রী বাঙালিদের উপর ভরসা করছেন না’! দিল্লি থেকে ফিরেই বিস্ফোরক বাবুল সুপ্রিয়

‘প্রধানমন্ত্রী বাঙালিদের উপর ভরসা করছেন না’! দিল্লি থেকে ফিরেই বিস্ফোরক বাবুল সুপ্রিয়
‘প্রধানমন্ত্রী বাঙালিদের উপর ভরসা করছেন না’! দিল্লি থেকে ফিরেই বিস্ফোরক বাবুল সুপ্রিয়

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ জাতীয় তথা রাজ্য রাজনীতিতে বড় ধাক্কা দিয়ে, সকলকে অবাক করে, সদ্য বিজেপি ছেড়ে জোড়াফুল শিবিরে নাম লিখিয়েছেন প্রাক্তন বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।

গত ৭ বছর ধরে বিজেপিতে ছিলেন আসানসোলের সাংসদ। এই সাত বছরের উপলব্ধির কথা শুনিয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়। মঙ্গলবারই দিল্লি থেকে কলকাতায় ফিরেছেন সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা তাঁকে সময় দিতে না পারায়, সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা না দিয়েই রাজ্যে ফিরেছেন বাবুল। এরপর বুধবারই সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়। সেই বাবুল সুপ্রিয় যাকে প্রধানমন্ত্রী ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের সময় আসানসোলের প্রচারে গিয়ে বাবুলকে জেতানোর আহ্বান জানিয়েছিলেন। বলেছিলেন, ‘মুঝে পার্লামেন্ট মে বাবুল চাহিয়ে।’ সেই বাবুলের গলাতেই এবার ক্ষোভের সুর প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে। এই ক্ষোভ এর আগেও কখনও শোনা গিয়েছে বলে কেউ মনে করতে পারছেন না।

আজ সকালে ট্রেনে চেপে দিল্লি থেকে হাওড়া পৌঁছান বাবুল সুপ্রিয়। সকালেই নামেন হাওড়া স্টেশনে। সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন যে, ‘গত সাত থেকে আট বছরে আমার কোথাও মনে হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী বাঙালিদের উপর ভরসা করছেন না। সাত বছরে কোনও ক্যাবিনেট মিনিস্টার তো ছেড়েই দিন, বাংলা থেকে কেউ স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রীও হননি।’ তাৎপর্যপূর্ণভাবে বুধবার বাবুলের কথায় উঠে এসেছে আর এক বিজেপি সাংসদের কথাও। তিনি বলেন, ‘আমরা নিজের কথা বলছি না। আলুওয়ালিয়াজিও অনেক প্রবীণ মানুষ। কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছেন। ওঁকেও তো কোনও স্বাধীন মন্ত্রক দেওয়া হয়নি। বাংলা থেকে যারাই নির্বাচিত হয়েছে তাঁদের সঙ্গে অসামঞ্জস্যপূর্ণ আচরণ করা হচ্ছে।’ পাশাপাশি তিনি এও জানিয়েছেন যে, ‘মানুষের জন্য কাজ করাটাই আসল। তা যদি দিদির নেতৃত্বে করতে পারি ভালই হবে।’

অন্যদিকে, ভবানীপুর উপনির্বাচনের ফল নিয়ে নিশ্চিত বাবুল সুপ্রিয়। তিনি জানিয়েছেন, ‘রাজ্যে পরপর তিনবার তৃণমূল ক্ষমতায় এসেছে। দলের পুরোধা যিনি, তিনি নিজের এলাকা থেকে জিতবেন এটাই তো স্বাভাবিক ব্যাপার।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, একসময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর খুব কাছের বলেই পরিচিত ছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। কিন্তু ২০২১-এ বিধানসভা নির্বাচনে দাঁড়িয়েও ভোটের হারের ঠিক পরেই, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার রদবদলের সময়ই ছন্দপতন ঘটে। পূর্ণমন্ত্রিত্ব তো দূরে থাক, প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকেও তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হয়।