“আমি মরে গেলেও ওকে মরতে দেব না!” নিজের মাস্ক পোষ্যকে পরিয়ে রেখে বললেন বৃদ্ধ

"আমি মরে গেলেও ওকে মরতে দেব না!" নিজের মাস্ক পোষ্যকে পরিয়ে রেখে বললেন বৃদ্ধ

কথায় বলে, “মানুষের সেরা বন্ধু তার পোষ্য!” জীবনের যে কোনও পরিস্থিতিতে চরম বন্ধুর মতো পাশে দাঁড়ায় পোষ্যরাই। এমনকি মনিবের জন্য নিজের জীবনও দিয়ে দিতে রাজি থাকে তারা। কিন্তু পোষ্যের জন্য নিজের জীবন বাজি রাখতে পারেন কোন মনিব? সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হল এমনই এক ভিডিও। যেখানে নিজের জীবনের থেকেও পোষ্যের জীবনের কদর করছেন এক ব্যক্তি। এমনকি নিজের মারা গেলেও, পোষ্যকে একবাক্যে বাঁচাতে রাজি তিনি।

ভাইরাল সেই ভিডিওতে দেখা যায়, রাস্তায় নিজের পোষ্য কুকুরের সঙ্গে হাঁটছেন অশীতিপর এক বৃদ্ধ। কিন্তু অবাক কাণ্ড! বৃদ্ধের মুখে মাস্ক নেই। তাঁর সঙ্গে থাকা একমাত্র মাস্কটি জড়ানো পোষ্য কুকুরটির মুখে। এই অবস্থায় স্বাভাবিক ভাবেই উঠে আসে এই প্রশ্ন? ‘কেন নিজে মাস্ক না পরে কুকুরটিকে পরিয়েছেন বৃদ্ধ?’ শুনে বৃদ্ধের জবাব, “ও আমার বন্ধু। ওকে আমি মরতে দিতে পারব না।”

পাশাপাশি বৃদ্ধ আরও বলেন, “একদম ছোট থেকে ওকে বড় করেছি। আমি মরে গেলে আফসোস থাকবে না। তবে আমি মরে গেলেও ওকে মরতে দেব না।” বৃদ্ধের এই কথাই মন জয় করে নিয়েছেন নেটিজেনদের। পাশাপাশি কুকুরটিও কিন্তু মাস্কটি একেবারেই খুলে ফেলছে না। বরং বাধ্য ছেলের মতো সেটি পরেই ঘুরছে সে।

প্রসঙ্গত, করোনার দাপটে জেরবার গোটা দেশ। এই অবস্থায় মাস্ক ছাড়া বাইরে বেরোনো একেবারেই নিষেধ বলে ঘোষণা করছেন বিশেষজ্ঞরা। পাশাপাশি যাঁদের বাড়িতে পোষ্য রয়েছে, তাঁদেরও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, বাইরে নিয়ে গেলে পোষ্যকে মাস্ক পরানোর। কারণ করোনায় পোষ্যদের মৃত্যুর বেশ কিছু ঘটনার কথাও শোনা গিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বৃদ্ধের ওই আচরণ তাই বিশেষ করে নজর কেড়েছে নেটিজেনদের।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.