‘পূর্ববর্তী সরকারগুলির দুর্নীতি দমনে রাজনৈতিক বা প্রশাসনিক সদিচ্ছা ছিল না’, তোপ প্রধানমন্ত্রীর

‘পূর্ববর্তী সরকারগুলির দুর্নীতি দমনে রাজনৈতিক বা প্রশাসনিক সদিচ্ছা ছিল না’, তোপ প্রধানমন্ত্রীর
‘পূর্ববর্তী সরকারগুলির দুর্নীতি দমনে রাজনৈতিক বা প্রশাসনিক সদিচ্ছা ছিল না’, তোপ প্রধানমন্ত্রীর

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ আরও একবার দুর্নীতি দমনের বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বুধবার সেন্ট্রাল ভিজিল্যান্স কমিশন ও সিবিআইয়ের যৌথ সম্মেলনে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। এই সম্মেলনে ভাষণ দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন যে, দেশে কোনও ভাবেই দুর্নীতি বরদাস্ত করা হবে না। পাশাপাশি তিনি এও বলেন যে, আধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে দুর্নীতির মোকাবিলা করা হবে।

সেন্ট্রাল ভিজিল্যান্স কমিশন ও সিবিআইয়ের যৌথ সম্মেলনে নিজের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী বলেন যে, ‘যেভাবে আগের সরকারগুলি কাজ করেছে তাতে এটা স্পষ্ট বোঝা যায় যে, দুর্নীতির সঙ্গে লড়াইয়ে তাঁদের রাজনৈতিক বা প্রশাসনিক কোনও সদিচ্ছা ছিল না। বর্তমানে দুর্নীতি দমনের জন্য কড়া পদেক্ষেপ গ্রহণ করার সদিচ্ছা রয়েছে সরকারের। প্রশাসনিক ক্ষেত্রেও লাগাতার উন্নতি করা হচ্ছে।’

এদিন প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন যে, ‘আজ দেশ বিশ্বাস করে দুর্নীতিপরায়ণ ব্যক্তি যতই শক্তিশালী হোক না কেন, তাদের প্রতি দয়া দেখানো হবে না। সরকার তাদের ছাড়বে না। বিগত ৬ থেকে ৭ বছরের চেষ্টায় আমরা দেশের মানুষের মধ্যে বিশ্বাস তৈরি করেছি। আজ তাঁরা মনে করছেন যে, দুর্নীতির সঙ্গে লড়াই করা সম্ভব।’

অন্যদিকে, এদিনের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ‘আত্মনির্ভর ভারত’ তৈরির উপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন। তাঁর কথায়, “আজ মানুষের জন্য মানুষের হয়ে কাজ করছে সরকার। স্বাধীনতার অমৃত মহোত্সবে আত্মনির্ভর হয়ে ওঠার জন্য কাজ করছে দেশ। আগামী ২৫ বছরে, ‘অমৃত কাল’ চলাকালীন, জাতি আত্মনির্ভর ভারত-এর জন্য গৃহীত সিদ্ধান্তগুলি অর্জনের দিকে এগিয়ে যাবে। আজ আমরা ‘সুশাসন’, ‘জনগণপন্থী সক্রিয় শাসন’ জোরদার করার জন্য কাজ করছি।”