সুখবর! একধাক্কায় কমে যেতে পারে পেট্রল-ডিজেলের দাম! কী পরিকল্পনা কেন্দ্রের?

সুখবর! একধাক্কায় কমে যেতে পারে পেট্রল-ডিজেলের দাম! কী পরিকল্পনা কেন্দ্রের? / প্রতীকী ছবি
সুখবর! একধাক্কায় কমে যেতে পারে পেট্রল-ডিজেলের দাম! কী পরিকল্পনা কেন্দ্রের? / প্রতীকী ছবি

বিগত কয়েক মাসে প্রায় আকাশ ছুঁয়েছিল পেট্রোপণ্যের দাম। সারা দেশ জুড়ে বিভিন্ন প্রান্তে একশো’র কোঠা পেরিয়ে গিয়েছিল পেট্রোলের মূল্য। পাল্লা দিয়ে দামী হচ্ছিল ডিজেলও। তবে দীপাবলির আগেও দেশবাসীকে উপহার দেয় মোদি সরকার। প্রধানমন্ত্রীর তরফে ঘোষণা করা হয়, এবার থেকে প্রতি লিটার পেট্রোলে ৫ টাকা ও লিটার প্রতি ডিজেলে ১০ টাকা শুল্ক ছাড় দেবে কেন্দ্র। সেই পরিবর্তিত নিয়ম অনুযায়ী এক ধাক্কায় বেশ খানিকটা কমে যায় পেট্রোপণ্যের দাম। ফলে কিছুটা হলেও হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন সাধারণ মানুষ।

তবে বিশেষজ্ঞদের দাবি অনুযায়ী, আগামী দিনে নাকি আরও কমতে চলেছে পেট্রোল-ডিজেলের দাম। বর্তমানে দেশের বেশিরভাগ রাজ্যই পেট্রোপণ্যের উপর থেকে কর কমিয়েছে। এই দাম ভবিষ্যতে আরও কমতে পারে। কিন্তু কীভাবে? জানা গিয়েছে, দেশের জনগণের সুবিধার্থে পেট্রোলের দাম কমাতে সম্প্রতি এক বড় পদক্ষেপ নিয়েছে আমেরিকা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ঘোষণা করেছেন, স্ট্র্যাটেজিক পেট্রোলিয়াম রিজার্ভ থেকে ৫ কোটি ব্যারেল তেল ছাড়া হবে। ফলে ওই দেশে অনেকটাই কমে যেতে পারে তেলের দাম।

আমেরিকার এই সিদ্ধান্তের পরই সম্ভবত একই রকমের পরিকল্পনা করতে চলেছে মোদি সরকার৷ কেন্দ্রের তরফে শীঘ্রই স্ট্র্যাটেজিক পেট্রোলিয়াম রিজার্ভ থেকে ৫০ লক্ষ ব্যারেল ক্রুড অয়েল ছাড়ার চিন্তাভাবনা করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই তেল সংস্থাগুলির সঙ্গে বৈঠকেও বসেছেন পেট্রলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরি। প্রসঙ্গত, এই ক্রুড অয়েলের সবচেয়ে বড় উপভোক্তা হচ্ছে আমেরিকা, চিন, ভারত, জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়া। ভারতের তরফে ৫০ লক্ষ ব্যারেল ক্রুড অয়েল ছাড়া হলে তাতে জনগণের লাভ বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা৷ কারণ সেক্ষেত্রে তেলের দাম অনেকটাই কমতে পারে।