মারণ করোনা ঘুরছে রাস্তায়! অবাধ্য জনগণকে জব্দ করতে অভিনব প্রচার নদিয়ায়

মারণ করোনা ঘুরছে রাস্তায়! অবাধ্য জনগণকে জব্দ করতে অভিনব প্রচার নদিয়ায়
মারণ করোনা ঘুরছে রাস্তায়! অবাধ্য জনগণকে জব্দ করতে অভিনব প্রচার নদিয়ায়

নিজস্ব প্রতিনিধি, নদিয়াঃ মাস্ক পরছেন না? মাস্ক ছাড়াই রাস্তায়? মানছেন না করোনাবিধি? সাবধান! এবার আর রক্ষে নেই। পুলিশ, জরিমানা-এসব তো অনেক পরের কথা, মাস্ক না পরে বাইরে বেরোলে, প্রথমেই সাক্ষাত করোনার খপ্পরে পড়তে হবে! তারপর আর দেখে কে! এক ছোঁয়াতেই করোনা পজিটিভ। এভাবেই নদিয়ার ফুলিয়ার রাস্তায় করোনা এবং অবাধ্য জনগণের মধ্যে চলছে চোর-পুলিশ খেলা।

আর যদি এমনটা না চান, তাহলে এখনই মাস্ক পরার অভ্যেস শুরু করুন। আসলে করোনারূপী অরবিন্দ প্রামাণিক কিছুদিন ধরেই লক্ষ করছিলেন যে, আইনি ব্যবস্থা, পুলিশের চোখ রাঙানি, সরকারি নির্দেশ, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের অনুনয়-বিনয় কিছুই কাজে আসছে না। এক শ্রেণির মানুষ কোনও কিছুরই তোয়াক্কা করছেন না। বর্তমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ে তাঁদের কোনও মাথাব্যথাই নেই। করোনাবিধি মানছেন না। মাস্ক না পরে, করোনা অতিমারীতে জারি হওয়া স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করে রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

একদিকে ডাক্তার, নার্সরা রাতদিন অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছেন, মানুষের প্রাণ বাঁচাতে। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষের মৃত্যু হচ্ছে এই মারণ ভাইরাসের কারণে, লক্ষ লক্ষ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন, আর সেখানে এঁরা সম্পূর্ণ ভাবলেশহীনভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছেন মাস্ক ছাড়াই।

আর তাই তাঁদের উচিত শিক্ষা দিতেই, অরবিন্দবাবু বৃহত্তর স্বার্থে মিথ্যের আশ্রয় নিয়েছেন। সারাদেহে পিচ বোর্ডের বাক্স ঝুলিয়ে, তাতে লিখেছেন বিভিন্ন সতর্কতামূলক বার্তা, মাথায় হেলমেট আর তার সঙ্গে সেটিং করা রংবেরঙের প্লাস্টিক বল, মুখে অদ্ভুত ভয়ঙ্কর মুখোশ। আর মুখে বলছেন, ‘আমি করোনা ছুঁয়ে দিলে তুমি হবে পজেটিভ।’

শুনতে মজার মনে হলেও, অরবিন্দবাবুর এই প্রয়াস কাজে এসেছে। বেশ কিছু মানুষ ঘর থেকে বেরোনোর সাহস পাচ্ছেন না। এমনই দাবি করেছেন অরবিন্দ প্রামাণিক। যদিও তিনি নিজে আইনি সমস্যা এড়াতে, নিজের করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট সঙ্গেই নিয়ে ঘুরছেন।