স্থিতিশীল মন্ত্রী! সাধন পাণ্ডের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ
স্থিতিশীল মন্ত্রী! সাধন পাণ্ডের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ

গতকালই শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন রাজ্যের ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরের মন্ত্রী সাধন পান্ডে। শুক্রবার জানা গেল তাঁর করোনা টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। আপাতত স্থিতিশীল রয়েছেন মন্ত্রী। চাইলে প্রচার করতে পারেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

গতকাল তীব্র শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তাকে বাইপাসের ধারে এর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। এখানে অল্প কিছু সময় তার চিকিৎসার পর অবস্থা স্থিতিশীল হলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এর পরেই চিকিৎসকরা পরামর্শ দেন করোনা পরীক্ষা করার। এর মত তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। সেই রিপোর্টই এদিন নেগেটিভ এসেছে।

প্রসঙ্গত বুধবার করোনার টিকা নিয়েছিলেন সাধনবাবু। এরপর থেকেই তাঁর গা হাত পায়ের ব্যথা শুরু হয়। একইসঙ্গে শুরু হয় শ্বাসকষ্ট। এর পরেই তাকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। উল্লেখ্য বহুদিন ধরে কিডনির সমস্যায় ভুগছেন মন্ত্রী। এছাড়াও বেশ কয়েকদিন ধরেই নানান ধরনের শারীরিক সমস্যায় জর্জরিত ছিলেন তিনি। তবে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, স্থিতিশীল রয়েছেন তিনি। তবে তাকে বাড়িতে বিশ্রাম নেওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। দলীয় সূত্রে খবর সবকিছু ঠিক থাকলে পরিকল্পনা মতে ভোটের প্রচার কাজ শুরু করবেন সাধন পান্ডে।

এদিকে গতকাল করোনা আক্রান্ত হয়ে হোমআইসলেশনে রয়েছেন রাজ্যের নারী সুরক্ষা মন্ত্রী শশী পাঁজা। এছাড়াও আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্র। একের পর এক মন্ত্রীর নেতৃত্বে করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরে স্বাভাবিকভাবেই দুশ্চিন্তায় ছিল তৃণমূল শিবির। তবে এর মধ্যে সাধন বাবুর করোনা নেগেটিভ হওয়ার রিপোর্ট খানিকটা স্বস্তি দিল।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.