১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ মেটানোর নির্দেশ দিল স্যাট

১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ মেটানোর নির্দেশ দিল স্যাট
১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ মেটানোর নির্দেশ দিল স্যাট

১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের সমস্ত যাবতীয় বকেয়া ডিএ মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিল অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনাল তথা স্যাট। স্যাটের আগের নির্দেশনামা অমান্য করার জন্য রাজ্যের বিরুদ্ধে ফের স্যাটের দ্বারস্থ হয়েছিল সরকারি কর্মচারী সংগঠন। আর সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার এই রায় দেয় স্যাট।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ২৬ জুলাই রাজ্য সরকারকে স্যাট নির্দেশ দেয় পরবর্তী ছয় মাসের মধ্যে রাজ্য সরকারি কর্মীদের যাবতীয় বকেয়া মিটিয়ে দেওয়ার জন্য। কিন্তু এই নির্দেশ দেওয়া সত্বেও রাজ্য সরকারের তরফে ডিএ মেটানোর জন্য কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। যার পরিপ্রেক্ষিতে আদালতে যায় সরকারি কর্মচারী সংগঠন। এদিকে এই রায় পুনর্বিবেচনা করে দেখার জন্য আদালতে আবেদন জানায় রাজ্য সরকার। যদিও জুলাই মাসের আট তারিখ রাজ্য সরকারের আবেদন খারিজ করে দেয় স্যাট। রাজ্য সরকারকে বকেয়া ডিএ মেটাতে হবে বলে নির্দেশও দেওয়া হয়।

এই রায় রাজ্য সরকারের ওপরে নিঃসন্দে চাপ সৃষ্টি করেছিল। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে আগামী দেড় বছর কর্মীদের কোন মহার্ঘ ভাতা বাড়ানো যাবে না বলে জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। কিন্তু গত জানুয়ারি মাসে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের ৪ শতাংশ ডিএ ঘোষণা করেছিল কেন্দ্র সরকার। এর ফলে রাজ্য সরকারি কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ জন্মাতে থাকে।

বুধবার স্যাটের তরফে জানানো হয়, আগামী ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে এই মহার্ঘভাতা মিটিয়ে দিতে হবে। যার ফলে কার্যত অস্বস্তিতে পড়েছে রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ নিয়ে বারবার আদালতে কার্যত মুখ পুড়েছে রাজ্য সরকারের। রাজ্যের রিভিউ পিটিশন বাতিল করে দিয়েছিল স্যাট।

প্রসঙ্গত, এই রায়ের বিরুদ্ধে রাজ্য সরকার হাইকোর্ট, সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার কথা বিবেচনা করছে। সরকারি তরফে জানানো হয়েছে এই রায়ের কপি হাতে পেয়ে সব দিক বিবেচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.