গোয়া-তে শক্তিবৃদ্ধি করতে তৎপর তৃণমূল! ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিলেন প্রাক্তন বক্সার ও ফুটবলার

গোয়া-তে শক্তিবৃদ্ধি করতে তৎপর তৃণমূল! ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিলেন প্রাক্তন বক্সার ও ফুটবলার
গোয়া-তে শক্তিবৃদ্ধি করতে তৎপর তৃণমূল! ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিলেন প্রাক্তন বক্সার ও ফুটবলার

গোয়াতে নিজেদের শক্তি বৃদ্ধি করতে তৎপর তৃণমূল। ক’দিন আগেই ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিয়েছেন গোয়ার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লুইজিনহো ফ্যালেইরো সহ মোট ১০ জন। সৈকত শহরের ক্ষুদিরাম অনুশীলন কেন্দ্রে একটি সাংবাদিক সম্মেলন করে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন তাঁরা। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সুব্রত মুখার্জী এবং সৌগত রায়। এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলে যোগ দিলেন দুই ক্রীড়া ব্যক্তিত্বও। ভারতের সিনিয়র বক্সিং অফিসার লেনি দা গামা ও প্রাক্তন ডিফেন্ডার ডেনজিল ফ্রাঙ্কো (এল) তৃণমূলে যোগ দিয়ে রাজনীতিতে অভিষেক করলেন।

আজই গোয়াতে মনোজ তিওয়ারির উপস্থিতিতে তৃণমূলে যোগ দিলেন দুই ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব। উল্লেখ্য, ৬৭ বছরের গামা ভারতীয় বক্সিংয়ের অভিজ্ঞ এক কর্মকর্তা। কয়েক দশক ধরে রেফারি এবং বিচারক হিসেবে অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর। সম্প্রতি টোকিও অলিম্পিক্সে সাতটি আন্তর্জাতিক বক্সিং প্রযুক্তিগত কর্মকর্তাদের মধ্যে তিনি ছিলেন একমাত্র ভারতীয়। এছাড়াও বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক চ্যাম্পিয়নশিপের দায়িত্বও ছিল তাঁর কাঁধে।

বিজেপি এবং কংগ্রেসের খেলাধুলার প্রতি তেমন সমর্থন না থাকায় কার্যত হতাশ লামা। তাই পা বাড়িয়েছেন লামা সবুজ শিবিরে। ঘাসফুলে যোগ দিয়ে তিনি বেশ উচ্ছ্বসিত। তাঁর কথায়, “খেলাধুলা নিয়ে রাজনীতিবিদ এবং রাজনৈতিক দলের সঙ্গে অনেক কথাবার্তা হয়েছে। এবার সময় এসেছে নতুনভাবে ভিন্ন কিছু করার।” অন্যদিকে, তৃণমূলে পা দিয়েই প্রাক্তন ফুটবলার ফ্রাঙ্কো আগামী বছরের রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার আগ্রহ দেখিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই সৈকত শহরে নিজেদের ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে উঠেপড়ে লেগেছে তৃণমূল নেতৃত্ব। গোয়ার ২ বারের মুখ্যমন্ত্রী এবং ৭ বারের বিধায়ক লুইজিনহো যোগ দেওয়ায় শহরের সংগঠন আরও মজবুত হয়েছে৷ ঘাসফুলে যোগদানের পরেই তাঁর দাবী ছিল, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একজন প্রকৃত যোদ্ধা। বর্তমানে সারা দেশে তাঁরই মতো লড়াকু নেত্রী প্রয়োজন। যদিও তিনি জানেন এই যাত্রা এত সহজ হবে না। তবুও এই লড়াইয়ে দিদির পাশে থাকতে রাজি তিনি।