এবার ‘ওয়াই ক্যাটাগরি’র নিরাপত্তা পাচ্ছেন সেরাম কর্তা আদর পুনাওয়ালা, জানালো কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

এবার ‘ওয়াই ক্যাটাগরি’র নিরাপত্তা পাচ্ছেন সেরাম কর্তা আদর পুনাওয়ালা, জানালো কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক
এবার ‘ওয়াই ক্যাটাগরি’র নিরাপত্তা পাচ্ছেন সেরাম কর্তা আদর পুনাওয়ালা, জানালো কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ গত কয়েকদিন ধরেই কোভিশিল্ডের দাম নিয়ে প্রবল বিতর্ক দেখা দিয়েছিল। বিভিন্ন মহল থেকে প্রশ্ন তোলা হয়েছিল, কেন কেন্দ্র এবং রাজ্য একই দামে এই ভ্যাকসিন পাবে না। এরপর বুধবার করোনা টিকা কোভিশিল্ডের দাম কমানোর কথা ঘোষণা করেন সেরাম কর্তা।

আর এবার এদিনই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে এক নির্দেশিকা জারি করে জানানো হয়েছে, করোনা টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থা সেরাম ইন্সটিটিউট অফ ইন্ডিয়া’র কর্তা আদর পুনাওয়ালাকে ওয়াই ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেওয়া হবে।

এই ‘ওয়াই ক্যাটাগরি’র নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকেন কেন্দ্রীয় আধাসেনার ১১ জন নিরাপত্তা কর্মী। এই ১১ জনের মধ্যে থাকেন এক থেকে দু’জন কমান্ডো। উল্লেখ্য, ১ মে থেকে দেশজুড়ে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সকলের জন্য শুরু হচ্ছে টিকাকরণ প্রক্রিয়া। আর এই তৃতীয় দফার টিকাকরণের আগেই নিরাপত্তা বাড়ানো হল সেরাম কর্তার।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সম্প্রতি করোনা টিকা কোভিশিল্ডের দামের বৈষম্য নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছিল। বিভিন্ন মহল থেকে এমনকি আদালতের পক্ষ থেকেও প্রশ্ন তোলা হয়, কেন কেন্দ্র এবং রাজ্য একই দামে ভ্যাকসিন পাবে না। কেন কেন্দ্র রাজ্য এবং বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে এই সংস্থার থেকে বেশি দামে ভ্যাকসিন কিনতে হবে? আসলে সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল যে, সেরাম তাদের করোনা টিকা কোভিশিল্ড কেন্দ্রকে ১৫০ টাকায় দেবে। তবে রাজ্যগুলিকে ৪০০ এবং বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে সেই টিকা ৬০০ টাকায় দেবে।

এরপরই বিভিন্ন মহল থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়, এই দামের বৈষম্য নিয়ে। বিরোধীদের পক্ষ থেকে দাবি তোলা হয় যে, ‘এক টিকা এক দাম’ এই নীতি গ্রহণ করতে হবে সেরাম ইনস্টিটিউটকে।

এই বিরোধিতার মুখে পড়ে, বুধবার নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন করেছে সেরাম। বুধবারই সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, রাজ্যের ক্ষেত্রেও টিকার দাম ২৫ শতাংশ কমাচ্ছে তারা। অর্থাৎ তা ৪০০ টাকা থেকে কমিয়ে করা হচ্ছে ৩০০ টাকা। যদিও বৈষম্য থেকেই যাচ্ছে এরপরেও। কিন্তু কেন্দ্রের থেকে এত কম দাম কেন নেওয়া হচ্ছে? এর উত্তরে আদর পুনাওয়ালা আগেই জানিয়েছেন, টিকার জন্য গড়ে খরচ পড়ছে দেড় হাজার টাকা। কিন্তু কেন্দ্রের অনুরোধেই তা এত কমে দেওয়া হচ্ছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.