৬ বছরের দাম্পত্যে ইতি! বিবাহ বিচ্ছেদের পথে অনুপম রায়, ‘স্ত্রী’ পিয়া এখন ‘বন্ধু’

৬ বছরের দাম্পত্যে ইতি! বিবাহ বিচ্ছেদের পথে অনুপম রায়, 'স্ত্রী' পিয়া এখন 'বন্ধু'
৬ বছরের দাম্পত্যে ইতি! বিবাহ বিচ্ছেদের পথে অনুপম রায়, 'স্ত্রী' পিয়া এখন 'বন্ধু'

দীর্ঘ ৬ বছরের বিবাহিত জীবনের ইতি। ট্যুইট করে স্ত্রী পিয়ার সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণা করলেন সঙ্গীতশিল্পী অনুপম রায়। ব্যক্তিগত মতানৈক্য এবং ভাবনার ফারাকের জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিলেন দু’জনে। তবে বিচ্ছেদের পরেও পিয়ার সঙ্গে বন্ধুত্ব বজায় থাকবে বলেও জানিয়েছেন সঙ্গীতশিল্পী।

ক’দিন আগেই বলিউড অভিনেতা আমির খানও একই ভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় স্ত্রী কিরণের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের কথা জানান। তিনিও জানিয়েছিলেন, বিচ্ছেদের পরেও কিরণ তাঁর বন্ধু হয়েই থাকবেন। সেই একই কায়দায় এবার নিজের বিচ্ছেদের কথাও ঘোষণা করলেন অনুপম। জানালেন, পিয়ার সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ দিনের সম্পর্ক মনে রাখার মতোই ছিল। তবে এবার থেকে আর স্বামী-স্ত্রী নয়, বন্ধু হিসেবেই থাকবেন দু’জনে।

অনুপমের এটি দ্বিতীয় বিবাহবিচ্ছেদ। এর আগেও একবার বিবাহ বিচ্ছেদের পথে হেঁটেছিলেন তিনি। দ্বিতীয়বার ফের সেই একই রাস্তায় সঙ্গীতশিল্পী। বৃহস্পতিবার ট্যুইটের মাধ্যমে যাঁরা বরাবর পিয়া এবং তাঁর পাশে থেকেছেন এবং তাঁদের প্রত্যেকটি পদক্ষেপকে সমর্থন জানিয়েছেন, সেই বন্ধু, পরিবার এবং শুভানুধ্যায়ীদের কৃতজ্ঞতা জানালেন অনুপম। এই বিবাহবিচ্ছেদকে সম্মানের সঙ্গে দেখার পাশাপাশি সেই সমর্থন যাতে ভবিষ্যতেও থাকে এই অনুরোধও করেছেন। অনুপমের এই ঘোষণার পরই পিয়াও ইনস্টাগ্রামে নিজেদের বিবাহবিচ্ছেদের কথা জানান। হুবহু একই বক্তব্য প্রকাশ করেন তিনিও।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ৬ ডিসেম্বর পিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন অনুপম। পিয়া গ্রেটার নয়ডার শিব নাডার বিশ্ববিদ্যালয়ে নৃবিজ্ঞানে পিএইচডি করেছেন। কলেজে পড়ার সময়ই অনুপমের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় তাঁর। পরবর্তীতে তা ভালবাসার সম্পর্কে পরিণত হয়। তারপরই দু’জনে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। ততদিনে অবশ্য অনুপমের প্রথম বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে। এবার দ্বিতীয় বিয়ের প্রায় ৬ বছরের মাথায় ভেঙে গেল সে সম্পর্কও। তবে এরপরও যে দু’জনে একে অপরের বন্ধু থাকবেন, এ কথা অনুপম-পিয়ার ঘোষণা থেকেই স্পষ্ট।