ফের দলবদল! বিজেপিতে যোগ দিলেন তৃণমূলের কয়েকজন বিদায়ী বিধায়ক-সহ অভিনেত্রী তনুশ্রী

ফের দলবদল! বিজেপিতে যোগ দিলেন তৃণমূলের কয়েকজন বিদায়ী বিধায়ক-সহ অভিনেত্রী তনুশ্রী
ফের দলবদল! বিজেপিতে যোগ দিলেন তৃণমূলের কয়েকজন বিদায়ী বিধায়ক-সহ অভিনেত্রী তনুশ্রী / ছবি সৌজন্যেঃ Screengrab from Facebook Video Post By @BJP4Bengal

বংনিউজ২৪x৭ডিজিটাল ডেস্কঃ এবারের বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী তালিকাকে কেন্দ্র করে ক্ষোভ আগেই ছিল। আর সেই ক্ষোভ থেকে শুরু হয়েছিল একে একে দলবদলের পালা। আজ ফের তৃণমূল ছেড়ে একঝাঁক নেতা-নেত্রী বিজেপিতে যোগদান করলেন। তৃণমূলের পতাকা ছেড়ে হাতে তুলে নিলেন বিজেপির পতাকা।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে বড় ধাক্কা তৃণমূল শিবিরে। আজ বিজেপিতে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দিলেন সিঙ্গুরের বিদায়ী তৃণমূল বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য, বিধানসভার প্রাক্তন ডেপুটি স্পিকার তথা সাতগাছিয়ার তৃণমূল বিধায়ক সোনালি গুহ, বিদায়ী বিধায়ক জটু লাহিড়ী, ফুটবলার তথা বিদায়ী বিধায়ক দীপেন্দু বিশ্বাস, অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী। এছাড়াও বিজেপি যোগ দিলেন এবারের প্রার্থী মালদার হবিবপুরের তৃণমূলনেত্রী সরলা মুর্মু।

এদিন হেস্টিংসে দলের নির্বাচনী কার্যালয়ে দিলীপ ঘোষের উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগদান করলেন তাঁরা। এদিন মেলা যোগদানে উপস্থিত ছিলেন সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়, মুকুল রায় ও শুভেন্দু অধিকারী প্রমুখ।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীর ব্রিগেডের পরেই তৃণমূলে বড় ফাটল বলা যায় আজকের এই দলবদলকে। একের পর এক তৃণমূল নেতা বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় নির্বাচনের আগে রাজ্যের শাসক দলের অস্বস্তি বাড়তে পারে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। আজই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন সাতগাছিয়ার তৃণমূল বিধায়ক সোনালি গুহ, নির্বাচনে প্রার্থী না হওয়ার জন্য তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন। সোনালি গুহ শুরু থেকেই মমতার ছায়াসঙ্গী হিসেবে পরিচিত রাজনৈতিক মহলে। এবারের বিধানসভা নির্বাচনে দল তাঁকে প্রার্থী করেনি। আর সেই ক্ষোভ থেকে বিজেপিতে যোগ দিলেন তিনি।

এছাড়াও বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন সিঙ্গুরের তৃণমূল বিধায়ক তথা সিঙ্গুরে জমি আন্দোলনের অন্যতম ব্যক্তিত্ব রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য। যিনি টানা দশ বছর সিঙ্গুরের বিধায়ক ছিলেন। এবারের নির্বাচনে বার্ধ্যকের দোহাই দিয়ে, তাঁকে প্রার্থী করা হয়নি। যা তিনি মানতে নারাজ। পাশাপাশি সিঙ্গুরে বেচারামকে প্রার্থী করায় প্রকাশ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি।

উল্লেখ্য, শুরু থেকেই তাঁর সঙ্গে বেচারাম মান্নার দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসেছে। জেলা পরিষদে রবীন্দ্রনাথ ঘনিষ্ঠ নেতাকে সরিয়ে বেচারামের আস্থাভাজনকে দায়িত্ব দেওয়ার পর, দুই নেতার সম্পর্কের চিড় আরও গভীর হয়। এরপর তাঁর পরিবর্তে বেচারামকে প্রার্থী করায়, রাজনীতি ছাড়ারও ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সোমবার সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে, বিজেপিতে যোগদান করলেন।

একইসঙ্গে বিজেপিতে যোগ দিলেন বসিরহাট দক্ষিণের তৃণমূল বিধায়ক তথা প্রাক্তন ফুটবলার দীপেন্দু বিশ্বাস। বিজেপিতে নাম লিখিয়েছেন হবিবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সরলা মুর্মুও। তাঁর অভিযোগ তৃণমূলে থেকে কাজ করা যাচ্ছে না। অথচ তাঁকে এবারের নির্বাচনে প্রার্থী করা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, তিনি প্রার্থী হতে চান না, কাজ করতে চান। তাই বিজেপিতে যোগ দিলেন। এদের পাশাপাশি এদিন বিজেপিতে যোগ দিলেন অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী।

বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন মালদার একাধিক তৃণমূল নেতাও। বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন শিবপুরের বিধায়ক জটু লাহিড়ি। মালদায় তৃণমূলের ১৪ জন জেলা পরিষদ সদস্য বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। মালদা জেলা পরিষদ বিজেপির দখলে চলে এসেছে, এদিন দাবি করেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।

এদিন এই মেলা যোগদান প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন যে, সকলেই কোনও শর্ত এবং টিকিটের দাবি ছাড়াই কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করে, বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.