গত অধিবেশনে আসতে পারতেন মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য ভালো লাগত! বিরোধীদের বললেন অধ্যক্ষ

গত অধিবেশনে আসতে পারতেন মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য ভালো লাগত! বিরোধীদের বললেন অধ্যক্ষ
গত অধিবেশনে আসতে পারতেন মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য ভালো লাগত! বিরোধীদের বললেন অধ্যক্ষ

বিধানসভা অধিবেশন এলেও তর্কবিতর্কে অধিবেশন কক্ষ ছেড়ে বেশিরভাগ সময় ওয়াকআউট করেন বিরোধীরা। এদিনও বিধানসভার কক্ষ থেকে বেরিয়ে যান বিজেপি বিধায়করা। তবে এবার বিরোধীদের উদ্দেশ্যে বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের আবেদন, “বিরোধীরা না থাকলে বিধানসভার গরিমা থাকে না। আপনাদের কাছে আবেদন, বিধানসভায় আসুন সরকারের দোষ-ত্রুটি চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিন।”

এদিন বিধানসভায় তিনটি মুলতুবি প্রস্তাব আনে বিজেপি। তবে তিনটি প্রস্তাবের মধ্যে কোনও প্রস্তাবই গৃহীত না হওয়ায় বিধানসভার ফ্লোরে নেমে বিক্ষোভ দেখান বিজেপি বিধায়করা। এরপরই বিধানসভা থেকে ওয়াক আউট করেন তাঁরা। মুলতুবি প্রস্তাব গ্রহণ না করে শুধুমাত্র পাশ করার সুযোগ দিয়ে বিধানসভার স্পিকার পক্ষপাতিত্ব করছেন বলেই দাবি করে বিজেপি। বিধানসভার মূল ফটকের সামনেও বিক্ষোভ শুরু করেন গেরুয়া শিবিরের বিধায়করা।

তারপরেই এদিন বিধানসভা অধিবেশনের শেষ দিনে ধন্যবাদজ্ঞাপনে অধ্যক্ষ বলেন, “বিরোধীরা না থাকলে বিধানসভার গরিমা থাকে না। আপনাদের কাছে আবেদন, বিধানসভায় আসুন সরকারের দোষ-ত্রুটি চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিন। সেদিন মুখ্যমন্ত্রী এসেছিলেন তখন আপনারা এলেও অধিবেশনকক্ষে আসেননি। আসতে পারতেন। তাঁর বক্তব্য আপনাদেরও ভাল লাগত।”

একইসঙ্গে, বিরোধীদের উদ্দেশ্যে পরামর্শ দিয়ে তিনি জানান, ” এই সরকার বিরোধীদের উপযুক্ত মর্যাদা দেয়। বিরোধীদেরও দরকার সরকারের ভাল কাজকে সমর্থন করা ও ভুল ত্রুটি ধরিয়ে দেওয়া। কিন্তু তার যেন সীমা বাইরে না চলে যায়, তার খেয়াল রাখতে হবে।সকলকে দেখতে হবে যাতে বিধানসভার মর্যাদা অক্ষত থাকে।”