বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই, ২০২২

এবার কাঁথিতে শ্মশান কেলেঙ্কারিতে নাম জড়াল অধিকারী পরিবারের! গ্রেফতার দুই

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: জুলাই ৭, ২০২২, ০৫:৩১ পিএম | আপডেট: জুলাই ৭, ২০২২, ০৫:৩১ পিএম

এবার কাঁথিতে শ্মশান কেলেঙ্কারিতে নাম জড়াল অধিকারী পরিবারের! গ্রেফতার দুই
এবার কাঁথিতে শ্মশান কেলেঙ্কারিতে নাম জড়াল অধিকারী পরিবারের! গ্রেফতার দুই

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ফের শিরোনামে কাঁথির অধিকারী পরিবার। শ্মশান নির্মাণ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগে নাম জড়াল রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর ভাই সৌমেন্দু অধিকারীর। কাঁথি পুরসভায় দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত শুরু করে পুরসভার সহকারী ইঞ্জিনিয়ার এবং ঠিকাদারকে গ্রেফতার করেছে ইতিমধ্যেই কাঁথি থানার পুলিশ। গ্রেফতার হওয়া দুই অভিযুক্তের নাম দিলীপ বেরা এবং সতীনাথ দাস অধিকারী। 

এদিনই ধৃত দুই ব্যক্তিকে কাঁথি মহকুমা আদালতে তোলা হয়। বিচারক ধৃত দুজনকে ৭ দিন পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। সূত্রের খবর এই দুইজন ছাড়াও অভিযুক্তদের তালিকায় রয়েছে সৌমেন্দু অধিকারীর নাম। তদন্ত করছে কাঁথি থানার পুলিশ। 

সূত্রের খবর, ইলেকট্রিক চুল্লির জন্য নির্দিষ্ট করে রাখা কাঁথি কলেজ মাঠ সংলগ্ন রাঙামাটি শ্মশানের মাঠে বেআইনি দোকান নির্মাণ করে তা নগদে বিক্রি করা হয়। পাশাপাশি সৌন্দর্যায়ানের কাজও হয়। উল্লেখ্য, সেই সময় কাঁথি পুরসভার প্রাক্তন পুরপ্রধান সৌমেন্দু অধিকারী দায়িত্বে ছিলেন। বেআইনি দোকান নির্মাণ করেছিলেন ঠিকাদার সতীনাথ দাস অধিকারী। 

তাঁর তত্ত্বাবধানের দায়িত্ব দেওয়া হয় কাঁথি পুরসভা সহকারী ইঞ্জিনিয়ার দিলীপ বেরাকে। এই দুইজনকেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। দুর্নীতির অভিযোগে এফআইআর দায়ের করেছে কাঁথি পুরসভা। সেই এফআইআর-এ রয়েছে শুভেন্দু অধিকারীর ভাইয়ের নাম। এই দুর্নীতি নিয়ে তদন্তের দাবি জানিয়েছিলেন বর্তমান কাঁথি পুরসভা পুরপ্রধান সুবল মান্না।

বুধবারই কাঁথি পুরসভার পুরপ্রধান সুবল মান্না কাঁথি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ তদন্ত শুরু করে গতকালই পুরসভার ঠিকাদার ও সহকারী ইঞ্জিনিয়ারকে আটক করে। আটক করে তাঁদের দীর্ঘক্ষণ জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাঁদের কথায় অসঙ্গতি দেখা দিলে তাঁদের গ্রেফতার করা হয়। 

এদিকে, কাঁথি পুরসভার পুরপ্রধান সুবল মান্না বলেন, ‘আইন আইনের পথে চলবে। এই বিষয়ে আর কোনও মন্তব্য করব না।’ পুলিশ সূত্রে খবর, একাধিক ধারায় মামলায় রুজু করা হয়েছে।