বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২

বড় সাফল্য এসটিএফ-এর ঝুলিতে! ৫০ কোটি টাকার হেরোইন-সহ মালদায় গ্রেফতার ২ মাদক কারবারি

১০:৩৬ পিএম, আগস্ট ১৬, ২০২১

বড় সাফল্য এসটিএফ-এর ঝুলিতে! ৫০ কোটি টাকার হেরোইন-সহ মালদায় গ্রেফতার ২ মাদক কারবারি

নিজস্ব প্রতিনিধি, মালদাঃ বড় সাফল্য রাজ্য পুলিশের এসটিএফ-এর ঝুলিতে। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে, প্রায় ৫০ কোটি টাকার হেরোইন-সহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করল এসটিএফ। রবিবার গভীর রাতে মালদার গাজোল থানা এলাকা থেকে ওই দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করে রাজ্য স্পেশাল টাস্কফোর্সের কর্তারা। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ১০ কেজি ৬৮ গ্রাম হেরোইন। যার বর্তমানে বাজারমূল্য প্রায় ৫০ কোটি টাকা। এমনটাই জানিয়েছে পুলিশ।

এতো বিশাল পরিমাণ মাদক উদ্ধার হওয়ায় তদন্তকারীদের কপালে চিন্তার ভাজ পড়েছে। জানা গিয়েছে, নির্দিষ্ট খবরের উপর ভিত্তি করে, রবিবার গভীর রাতে মালদা পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে যৌথ অভিযান চালায় এসটিএফ। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ মনে করছে মাদকের বিনিময়ে অস্ত্র বা অস্ত্রের বিনিময়ে মাদক পাচারের চক্র ক্রমশ সক্রিয় হয়ে উঠছে মালদায়। এখানেই শেষ নয়, তদন্তকারীদের আরও অনুমান যে, এই চক্রের সঙ্গে সীমান্তের ওপারের দুষ্কৃতীরাও জড়িত আছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে যে, ধৃত দুই মাদক কারবারির নাম ললিত সাহানি ওয়েবং সুমিত আলি পাত্র। ললিত সাহানির বাড়ি বিহারের সমস্তিপুর এলাকায়। আর সুমিত আলি পাত্রর বাড়ি মুর্শিদাবাদের মিরজাপুরে। এই দুই মাদক কারবারিকে ধরতে, গাজোল থানার আদিনা এলাকার জাতীয় সড়কের কাছে সাদা পোশাকে ওত পেতে থাকে পুলিশ। এদিকে ওই দুই মাদক কারবারি, বেশ কয়েকটি প্লাস্টিকের প্যাকেটে হেরোইন নিয়ে আদিনা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিল। মাদক কারবারিদের সেই পরিকল্পনার কথা টের পেতেই, তাদের গ্রেফতার করে এসটিএফ-এর কর্তারা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে যে, উদ্ধার হওয়া এই বিপুল পরিমাণ হেরোইন ব্যাগে করে চোরাপথে কলকাতায় নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিল ধৃত দুই মাদক কারবারি। বিহার থেকেই এই মাদক নিয়ে আসা হয়। সেগুলি বাইরে পাচার করার জন্য তারা জড়ো হয়েছিল। মালদার আদিনা হয়ে কলকাতায় ওই মাদক পাচার করার পরিকল্পনা ছিল তাদের। যদিও শেষরক্ষা হয়নি। মাদক কারবারিদের পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হওয়ার আগেই, তারা পুলিশে জালে পড়ে। এসটিএফ এবং মালদা পুলিশের যৌথ তৎপরতায় তাদের পরিকল্পনা ভেস্তে যায়।