ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের আগে কড়া নিরপত্তা শহর জুড়ে

ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের আগে কড়া নিরপত্তা শহর জুড়ে
ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের আগে কড়া নিরপত্তা শহর জুড়ে

করোনার ধাক্কা সামলে আজ ইডেনে ভারত বনাম নিউজিল্যান্ডের টি-২০ ম্যাচ। এই ম্যাচ হবে দিন রাতের। তার আগেই শহর কলকাতাকে মুড়ে ফেলা হল কড়া নিরাপত্তায়। ম্যাচের একদিন আগে থেকেই তাজ হোটেলে টিমের নিরাপত্তার জন্য পুলিশি ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। শহরে আসা প্লেয়ার ছাড়াও অন্যান্য আধিকারিকদের যাতে কোনও রকম সমস্যা না হয় সেই বিষয়ে তৎপর রয়েছে কলকাতা পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, নিউজ়িল্যান্ড ও ভারতীয় দলের বাসের জন্য আলাদা এসকর্ট টিম তৈরি রাখা হয়েছে। এই আলাদা পুলিশ এসকর্ট টিম হোটেল থেকে টিমকে ইডেন গার্ডেন্স পর্যন্ত পৌঁছে দেবে।প্রত্যেক দলের এসকর্টের দায়িত্বে থাকবেন একজন করে পুলিশ ইন্সপেক্টর।

নিরাপত্তা ব্যবস্থায় কোনও খামতি রাখতে চাইছে না কলকাতা পুলিশ। এর জন্য ইডেন গার্ডেন্সের বাইরের অংশকে পাঁচটা সেক্টরে ভাগ করেছে কলকাতা পুলিশ। প্রত্যেকটি সেক্টরের দায়িত্বে রয়েছেন একজন করে ডিসি পদাধিকারী। এছাড়াও ম্যাচের একদিন আগে থেকেই তাজ হোটেলে টিমের নিরাপত্তার জন্য পুলিশি ব্যবস্থা রাখা হয়েছিল। পাঁচ জন এসিস্ট্যান্ট কমিশনার ও এক জন ডিসি চিকেন দায়িত্বে। হোটেলের চারপাশ ঘিরে রাখা হয়েছে কড়া পুলিশি প্রহরায়। তৈরি রয়েছে কমব্যাট ফোর্সও। হোটেলের আশেপাশে সাদা পোশাকেও পুলিশকর্মীদের মোতায়েন করা হয়েছে।

তিনটি আলাদা আলাদা শিফটে নজরদারি চালাচ্ছেন পুলিশকর্মীরা। প্রত্যেক শিফটের দায়িত্বে থাকছেন একজন করে অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার পদাধিকারী আধিকারিক।ক্লাব হাউস ও মাঠের বাউন্ডারির ভিতরের অংশের দায়িত্বেও একজন করে ডিসি পদমর্যাদার পুলিশ আধিকারিক থাকছেন।

এছাড়াও দর্শকদের নিরাপত্তার জন্যও বাড়তি ব্যবস্থা করেছে পুলিশ প্রশাসন। ইডেন সংলগ্ন বাস স্ট্যান্ডগুলিতেও বাড়তি পুলিশি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। মাঠের বাইরে পাঁচটি পুলিশ সহায়তা কেন্দ্র তৈরি করা হয়েছে। ৯ টি ওয়াচ টাওয়ার তৈরি করা হয়েছে মাঠের চারপাশে নজর রাখার জন্য। তিনটি কুইক রেসপন্স টিম এবং ১১টি বালির বাঙ্কারও তৈরি করা হয়েছে।