জোম্যাটোয় এবার মিলবে মুম্বইয়ের রাস্তার স্টলের লিট্টি-চোখা! বিক্রেতাকে সাহায্যে এগিয়ে এল নেটদুনিয়া

জোম্যাটোয় এবার মিলবে মুম্বইয়ের রাস্তার স্টলের লিট্টি-চোখা! বিক্রেতাকে সাহায্যে এগিয়ে এল নেটদুনিয়া / Image Source- Tweeted By @khaalipeeli
জোম্যাটোয় এবার মিলবে মুম্বইয়ের রাস্তার স্টলের লিট্টি-চোখা! বিক্রেতাকে সাহায্যে এগিয়ে এল নেটদুনিয়া / Image Source- Tweeted By @khaalipeeli

আজকাল সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে যে কোনও বিষয়ই বেশ ভাইরাল হয়ে উঠছে। বিশেষ করে তা যদি খাবার সংক্রান্ত কিছু হয়, তাহলে তো আর কথাই নেই। নিমেষের মধ্যে নেটিজেনদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে সেগুলি। মুহূর্তেই তা জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। সেরকমই বেশ কয়েকদিন আগেই ভাইরাল হয়ে উঠেছিল দিল্লির ‘বাবা কা ধাবা’। এবার দিল্লি নয়, মুম্বইয়ের ফুটপাতের একটি ফুড স্টল মন জয় করলেন নেটিজেনদের। মুম্বইয়ের লিট্টি-চোখা বিক্রেতা যোগেশের নাম মুখে মুখে ফিরছে সবার।

সম্প্রতি প্রিয়াংশু দ্বিবেদী নামের এক সোশ্যাল মিডিয়া ইউজার যোগেশের স্টলটির কথা শেয়ার করেন টুইটারে। পোস্টে তিনি উল্লেখ করেন, মুম্বইয়ের বরসোভা বিচের কাছে যোগেশের দোকান। সেখানে তিনি মাত্র ২০ টাকায় দুটো মাখন লাগানো লিট্টি, সুস্বাদু আলুর চোখা, চাটনি আর স্যালাড বিক্রি করে থাকেন ক্রেতাদের। সেই লিট্টি-চোখার প্রশংসা করে বেশ কিছু বক্তব্য তুলে ধরেছিলেন প্রিয়াংশু। এরপরই নেটিজেনের নজরে আসেন যোগেশ।

প্রিয়াংশু টুইটারে এও লেখেন, যোগেশ তাঁর কাছে আক্ষেপ করেছেন এই বলে যে, যেটুকু আয় হয়, তার বেশিরভাগটাই অন্যান্যদের টাকা দিতে দিতে খরচ হয়ে যায়। এভাবে রোজকার দিন-গুজরানে বেশ সমস্যায় পড়তে হয় তাঁকে। তখনই প্রিয়াংশু জ্যোমাটোর সঙ্গে যুক্ত হওয়ার কথা জানান যোগেশকে। কিন্তু তা কী ভাবে করতে হয় ওই লিট্টি বিক্রেতার জানা ছিল না। এরপর প্রিয়াংশু নিজেই উদ্যোগী হয়ে জ্যোমাটোর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। পালটা টুইটে সেই সংস্থা থেকে প্রিয়াংশুকে আশ্বাস দেওয়া হয়, তিনি যদি যোগেশের নম্বর পাঠিয়ে দেন তাহলে কর্মীরা গিয়ে ওঁকে জ্যোমাটোতে যুক্ত করে নেবেন।

অন্যদিকে, প্রিয়াংশুর পোস্টটি ভাইরাল হতেই তাঁর দিকে সাহায্যের হাত বাড়িতে দিতেও তৎপর হয়ে ওঠেন বহু নেটিজেন। এমনকি চাঁদা তুলে আর্থিক সাহায্যের কথাও জানান অনেকে। তবে জ্যোমাটোর এই আপাত পদক্ষেপে আশা রাখা যায়, যোগেশের অবস্থায় কিছু পরিবর্তন অবশ্যই হবে। তাঁর কথা এভাবে জনসমক্ষে তুলে ধরার জন্য প্রিয়াংশুকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন নেটনাগরিকরা।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.