অক্সিজেন ও বেড নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় যে কেউ মতপ্রকাশ করতে পারেন, করা যাবে না হেনস্থাঃ সুপ্রিম কোর্ট

অক্সিজেন ও বেড নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় যে কেউ মতপ্রকাশ করতে পারেন, করা যাবে না হেনস্থাঃ সুপ্রিম কোর্ট
অক্সিজেন ও বেড নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় যে কেউ মতপ্রকাশ করতে পারেন, করা যাবে না হেনস্থাঃ সুপ্রিম কোর্ট

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশে ক্রমাগত বেড়েই চলেছে করোনা সংক্রমণ। বাড়ছে পাল্লা দিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা। বেডের আকাল, প্রয়োজনীয় ওষুধ, অক্সিজেনের অভাব লেগেই হয়েছে। দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা বড় সংকটের মুখোমুখি। অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু এখন প্রতিদিনের চেনা চিত্র হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এই বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে অক্সিজেন বা বেড না পেয়ে, কোনও নাগরিক যদি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের বক্তব্য তুলে ধরেন, বা সরব হন, তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে কোনও রকম কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করা যাবে না। এমনটাই জানালো দেশের শীর্ষ আদালত।

করোনায় চিকিৎসা সংকট নিয়ে একটি মামলার শুনানি চলাকালীন এদিন এভাবেই কড়া হুঁশিয়ারি দিল দেশের শীর্ষ আদালত। শুধু তাই নয়, এরপরও কোনও নাগরিককে হেনস্থা করা হলে, তা আদালতের অবমাননা হিসেবে ধরা হবে। সে বিষয়েও সতর্ক করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় এদিন একটি মামলার শুনানি চলাকালীন এই মন্তব্য করেছেন৷ তিনি বলেন, ‘একজন নাগরিক বা বিচারপতি হিসেবে এটা আমার কাছে গভীর চিন্তার বিষয়৷ কোনও নাগরিক যদি সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিযোগ জানান, কোনওভাবেই যেন সেই তথ্য দমানোর চেষ্টা না করা হয়৷ আমাদের উচিত সকলের কথা শোনা৷ কেউ অক্সিজেন বা বেড চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিযোগ জানালে, যদি তাঁকে হেনস্থার শিকার হতে হয়, বা তাঁর বিরুদ্ধে দমনমূলক পদক্ষেপ নেওয়া হয়, তাহলে আমরা তাকে আদালতের অবমাননা হিসেবেই ধরে নেব৷ মানুষ এখন গভীর সংকটের মধ্যে রয়েছে৷’

বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় আরও অভিযোগ করেছেন যে, বর্তমান করোনা পরিস্থিতি খুবই খারাপ। শুধু সাধারণ মানুষই নন, চিকিৎসক, নার্স স্বাস্থ্যকর্মীরাও ঠিকমতো চিকিৎসা পরিষেবা পাচ্ছেন না বলেও ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি৷

দেশের শীর্ষ আদালত মন্তব্য করেছে যে, সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিযোগ জানালেই, তা মিথ্যে বলে ধরে নেওয়ার কোনও কারণ নেই। পাশাপাশি, মন্দির, মসজিদ-সহ সমস্ত ধর্মীয় স্থান, হোস্টেলগুলিকেও করোনা রোগীদের চিকিৎসার কাজে যাতে ব্যবহার করা হয়, সেই পরামর্শও দিয়েছে এদিন সুপ্রিম কোর্ট৷

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.