এখনও আঁকরে রাজ্য সরকারের পদ! শুভেন্দুকে সরাতে প্রক্রিয়া শুরু সমবায় দফতরের

এখনও আঁকরে রাজ্য সরকারের পদ! শুভেন্দুকে সরাতে প্রক্রিয়া শুরু সমবায় দফতরের
এখনও আঁকরে রাজ্য সরকারের পদ! শুভেন্দুকে সরাতে প্রক্রিয়া শুরু সমবায় দফতরের

দলবদল করলেও এখনও রাজ্য সরকারের পদ ছাড়েননি অধুনা রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এখনও বহু সমবায় ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন তিনি। তাই এবার তাঁকে সেই পদ থেকে সরানোর প্রক্রিয়া শুরু করল রাজ্য সরকার।

২০০৯ সালে তমলুকের সাংসদ নির্বাচত হওয়ার পরেই কাঁথি সমবায় ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান হন শুভেন্দু। সেই থেকেই তিনি এই পদে রয়েছেন। সম্প্রতি তাঁকে ওই পদগুলি থেকে সরানোর দাবিতে সরব হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব।

গত বছর মেদিনীপুর কলেজিয়েট মাঠে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের হাত ধরে বিজেপি-তে যোগ দেন শুভেন্দু অধিকারী। দলবদল করার আগেই রাজ্যের মন্ত্রিসভা ও বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেন তিনি । কিন্তু পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের অভিযোগ, এখনও অবৈধভাবে একাধিক সমবায় ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান পদে আসীন রয়েছেন শুভেন্দু।

মৎস্যমন্ত্রী তথা পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূলের নেতা অখিল গিরি বলেন, ‘‘রাজ্য সরকারের সমালোচনা করতে হলে সমবায় ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করে তা করুন বিরোধী দলনেতা। ২০০৯ সাল থেকে টানা তিন বার কাঁথি সমবায় ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন। ২০১৭ সালে শেষবার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হন তিনি। যা পুরোপুরি আইন বর্হিভূত।’’

প্রাক্তন সমবায়মন্ত্রী জ্যোর্তিময় করের দাবি, সমবায় আইনের ১১ নম্বর ধারা অনুযায়ী কেউ টানা ৩ বার চেয়ারম্যান থাকতে পারেন না। কিন্তু এক্ষেত্রে নিয়ম মানেননি নন্দীগ্রাম বিধায়ক।সূত্রের খবর, পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব সমবায় ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান পদ থেকে তাঁকে সরাতে রাজ্য সরকারের কাছে দরবারও করেছে।