বিয়ের পরদিনই উদ্ধার হল নববধূর ঝুলন্ত দেহ! চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকায়

বিয়ের পরদিনই উদ্ধার হল নববধূর ঝুলন্ত দেহ! চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকায়
বিয়ের পরদিনই উদ্ধার হল নববধূর ঝুলন্ত দেহ! চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকায় / নিজস্ব ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ মালদাঃ এই অস্বাভাবিক ঘটনা ঘটলো মালদায়। বিয়ের একদিন পরেই উদ্ধার হল নববধূর ঝুলন্ত দেহ। এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের বামনগোলায়। মৃত ওই বধূর নাম কনিকা দাস (১৯)। তিনি অসমের বাসিন্দা।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার বিয়ে হয় বামনগোলার সাপমারি গ্রামের বাসিন্দা বিপ্লব দাসের সঙ্গে। তবে বিয়ের পরদিনই শোয়ার ঘরে নববধূর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান পরিবারের লোকেরা। খবর পেয়ে পুলিশ এসে দেহটি উদ্ধার করে স্থানীয় মোদিপুকুর স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রহস্য দানা বেঁধেছে।

অন্যদিকে মৃতার শ্বশুর মধুসূদন দাস জানান, মেয়ের পরিবার আমার বাড়িতে ছিল। এখান থেকেই বিয়ে হয়েছিল। তবে বিয়ের পরদিনই কেন ও গলায় দড়ি দিল কিছুই বুঝতে পারছি না। মেয়ের বাবা চন্দন দাসও জানান, ঘটনার কারণ তিনি বুঝতে পারছেন না। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.