কোভিড বিধিতে জোর দিয়েই হবে বাকি চার দফার ভোট! সিদ্ধান্ত সর্ব দলীয় বৈঠকে

কোভিড বিধিতে জোর দিয়েই হবে বাকি চার দফার ভোট! সিদ্ধান্ত সর্ব দলীয় বৈঠকে
কোভিড বিধিতে জোর দিয়েই হবে বাকি চার দফার ভোট! সিদ্ধান্ত সর্ব দলীয় বৈঠকে

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ পূর্ব নির্ধারিত সময়সূচি অনুযায়ী আগামী চার দফাতেই হবে বাকি ভোট। গতকালই তা নির্দেশ দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন দিল্লির নির্বাচন কমিশন। এরপরে এদিন শুক্রবার সর্বদলীয় বৈঠকের পরেও বলবৎ রইল সেই সিদ্ধান্ত। বরং জোর দেওয়া হল কোভিড বিধি মেনে প্রচারে। কলকাতা হাইকোর্ট নির্বাচনী প্রচারের ক্ষেত্রে কড়া নির্দেশ দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন কোভিড বিধি যথাযথ পালন করতে হবে। সেই মতই তড়িঘড়ি সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছিল নির্বাচন কমিশন। এদিন বৈঠকে প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দলের দু’জন করে প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। একইসঙ্গে উপস্থিত ছিলেন মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আরিজ আফতাব, স্বাস্থ্য সচিব নারায়ন স্বরূপ নিগম, এডিজি আইন-শৃঙ্খলা জগমোহন।

এদিন বৈঠক শেষে বেরিয়ে এসে তৃণমূলের তরফে উপস্থিত পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, তারা পঞ্চম দফা বাদ দিয়ে বাকি তিন দফার ভোট একসঙ্গে করানোর দাবি জানিয়েছেন। পার্থ বাবুর কথায়, তারা প্রথমেই বলেছিলেন এই করোনা পরিস্থিতিতে আট দফা ভোটে বাকি কাজকে বাধা প্রাপ্ত করা হচ্ছে। তারা মানুষের জীবনকে মূল্যবান বলে মনে করেন। এই পরিস্থিতিতে সব করোনা বিধি মেনে কাজ করা উচিত। ক্রমাগত ভোটের ফলে কোভিড নিয়ন্ত্রণের কাজ না করে ভোটের কাজে নিয়ে যাওয়া হয়েছে আধিকারিকদের। কমিশনকে তিনি জানান গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষা হোক। কিন্তু করোনা বিধি মেনে। এরপরেই তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতির কথা চিন্তা করে কমিশনকে বোঝানোর চেষ্টা করেছেন, যে তিন দফা রয়েছে তাকে একসাথে করতে। তবে প্রচারের সুযোগ অব্যাহত রাখতে হবে বলে জানান তিনি।

অন্যদিকে, বিজেপির প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিশির বাজোরিয়া, স্বপন দাসগুপ্তরা। এদিন স্বপন বাবুরা অবশ্য জানান, তাঁরা ভার্চুয়াল প্রচারের পক্ষে নন। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ দিয়েছেন সুস্থ ভাবে নির্বাচন করার জন্য। কমিশন যা নিয়ম করবে করোনা নিয়ে বিজেপি সব মানবে। এই গণতন্ত্রের স্পিরিট যেন না কমে। যা করার এর মধ্যে করতে হবে। তাঁর কথায়, ভার্চুয়াল প্রচার করার হলে প্রথম দফা থেকেই করতে হত।

পাশাপাশি, সংযুক্ত মোর্চার তরফের রবীন দেব জানান, করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছেন তারা। নির্বাচনের ক্ষেত্রেও সেই ভাবে চলবেন তারা। একইসঙ্গে তাঁরা যে ইতিমধ্যেই নির্বাচনী প্রচার বন্ধ রেখেছেন সেই কথাও জানান। এদিকে অভিযোগ করে বলেন, কেন্দ্রীয় শাসক দল নির্বাচন কমিশনের কোভিড বিধি মানছেন না।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.