ভুয়ো টিকাকরণের ঘটনা সামনে আসতেই কড়া রাজ্য সরকার! জেলাশাসকদের দেওয়া হল এই নির্দেশ

ভুয়ো টিকাকরণের ঘটনা সামনে আসতেই কড়া রাজ্য সরকার! জেলাশাসকদের দেওয়া হল এই নির্দেশ
ভুয়ো টিকাকরণের ঘটনা সামনে আসতেই কড়া রাজ্য সরকার! জেলাশাসকদের দেওয়া হল এই নির্দেশ

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ করোনার জেরে দেশ সহ রাজ্যবাসী নাজেহাল। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এ প্রাণ হারিয়েছেন বহু মানুষ। তবে বর্তমানে অক্সিজেনের জোগান, টিকাকরন বৃদ্ধি সহ রাজ্য গুলিতে করোনা বিধিনিষেধ জারি থাকায় অনেকটাই হ্রাস পেয়েছে করোনা সংক্রমণ। বৃদ্ধি পেয়েছে সুস্থতার হারও। আর এরই মাঝে রাজ্যে ভুয়ো টিকাকরনের ঘটনা সামনে আসায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে রাজ্যবাসীর মনে। আর এই ঘটনা সামনে আসতেই এবার কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার।

প্রসঙ্গত কসবায় ভুয়ো টিকাকরণের ঘটনা সামনে আসতেই গ্রেফতার হয়েছেন ভুয়ো IAS দেবাঞ্জন দেব। কসবা এলাকায় ভুয়ো ভ্যাক্সিনেশন সেন্টার খোলেন তিনি। সেখান থেকেই মঙ্গলবার, ২২ জুন টিকা নেন মিমি। তারপরে টিকা নেওয়ার সার্টিফিকেট না পাওয়ায় পুলিশ স্টেশনে গিয়ে অভিযোগ করেন তিনি। তাঁরই তৎপরতায় বুধবার জানা যায় ওই ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্প আসলে ভুয়ো। এর জেরে অভিনেত্রী তথা সাংসদ মিমি সহ বহু মানুষ টিকাকরণ জালিয়াতির শিকার হয়েছে।

তবে আর যেন রাজ্যের কোন মানুষ টিকাকরণ জালিয়াতির শিকার না হন সেদিকে কড়া নজর দিচ্ছেন রাজ্য সরকার। নবান্ন সূত্রে জানা গেছে, গতকাল অর্থাৎ শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজ্যের মুখ্য সচিব জেলা শাসকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। এবং সেই বৈঠকে তিনি কড়া বার্তা দেন, করণ রকম জালিয়াতি যেন আর না হয় সেদিকে নজর দিতে বলেন জেলাশাসকদের। এছাড়া আজ শনিবারও রাজ্যের মুখ্য সচিব বৈঠকে বসেন এবং খুব শীঘ্রই অ্যাডভাইজারির জারি করবেন বলে জানান।

অন্যদিকে রাজ্যে মুখ্য সচিব জেলাশাসকদের কড়া নির্দেশ দিয়ে জানিয়েছেন, সরকারি বা বেসরকারি সকল টিকাকরণ কেন্দ্রগুলিকে প্রশাসনের অনুমোদিত হতে হবে। প্রশাসনের অনুমোদিত সিভিসি নম্বর থাকতে হবে। এছাড়া ভ্যাকসিনগুলির নির্দিষ্ট ব্যাচ নম্বর ও এক্সপায়েরির ডেট থাকতে হবে। এছাড়া ‘cowin’ সফটওয়্যার ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক তাও জানিয়েছেন।